রপ্তানি আয়ে ২৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি
বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » অর্থনীতি

রপ্তানি আয়ে ২৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি

Export_Itemচরম রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যেও চমক দেখাচ্ছে রপ্তানি খাত।নভেম্বর মাসে দেশের রপ্তানি আয়ে ২৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে।আর বরাবরের মত এতে বড় অবদান রেখেছে দেশের তৈরি পোশাক শিল্প।গত পাঁচ মাসে পোশাক শিল্পের দুটি উপ-খাত নিট ও ওভেনে রপ্তানি বেড়েছে যথাক্রমে ২০ ও ২১ শতাংশ।এছাড়া হিমায়িত খাদ্য এবং চামড়া ও চামড়াজাত পণ্যও রপ্তানির এ উচ্চ প্রবৃদ্ধিতে ভূমিকা রেখেছে।রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি)সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

নভেম্বর মাসে বাংলাদেশ থেকে ২২১ কোটি ২৪ লাখ ডলার মূল্যের পণ্য রপ্তানি হয়েছে।যা শুধু গত বছরের একই সময়ের চেয়ে বেশি নয়,নভেম্বর মাসের লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও সাড়ে ৬ শতাংশ বেশি।গত বছরের নভেম্বর মাসে বাংলাদেশ ১৭৬ কোটি ৫০ লাখ ডলার মূল্যের পণ্য রপ্তানি করেছে।অন্যদিকে চলতি বছরের নভেম্বর মাসে রপ্তানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২০৮ কোটি ৬২ লাখ ডলার।

চলতি অথবছরের শুরু থেকেই তৈরি পোশাক রপ্তানিতে উচ্চ প্রবৃদ্ধি বজায় আছে।বছরের প্রথম পাঁচ মাসে বাংলাদেশের মোট রপ্তানি আয়ের পরিমাণ দাঁড়ায় এক হাজার ১৯৬ কোটি ডলার।এর মধ্যে শুধু তৈরি পোশাক রপ্তানি থেকে এসেছে ৯৬৫ কোটি ডলার।পাঁচ মাসে এ খাতে গড় প্রবৃদ্ধি ২১ শতাংশের কাছাকাছি।

তাজরীন ফ্যাশনে অগ্নিকাণ্ড ও রানা প্লাজা ধসে সহস্রাধিক পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু দেশের তৈরি পোশাক শিল্পের জন্য বিরাট আঘাত হিসেবে নেমে আসে।এসব ঘটনার প্রভাব কেটে যাওয়ার আগেই শুরু হয় ব্যাপক রাজনৈতিক অস্থিরতা,হরতাল-অবরোধ ও সংঘাত। তার মধ্যে পোশাক রপ্তানির এ প্রবৃদ্ধি বড় ধরনের বিষ্ময়।

তবে রোববার আন্তজাতিক সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,গত অক্টোবর মাসে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় তৈরি পোশাকের রপ্তানি অর্ডার প্রায় ৪০ ভাগ কম এসেছে।জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সৃষ্ট রাজনৈতিক অস্থিরতা ও অচলাবস্থার কারণে এমনটি হয়েছে।অন্যদিকে বিরোধী দল আহূত হরতাল-অবরোধের মত কর্মসূচির কারণে দেশের অর্থনীতি একেবারে স্থবির হয়ে পড়েছে।

চলতি অথবছরের নভেম্বর পযন্ত সময়ে চমাড়া খাতে রপ্তানি আয় এসেছে ১৯ কোটি ৪৩ লাখ ডলার,যা আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ৫০ শতাংশ বেশি।এ সময়ে চামড়াজাত পণ্য রপ্তানি ৩৭ শতাংশ বেড়ে ২৩ কোটি ৭১ লাখ ডলার হয়েছে।পাঁচ মাসে হিমায়িত খাদ্যে রপ্তানি আয় এসেছে ৩২ কোটি ৭৮ লাখ ডলার,যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২৩ কোটি ৭৬ লাখ ডলার।

এই বিভাগের আরো সংবাদ