‘বিভক্ত নয় সাংবাদিকরা নিরপেক্ষ থাকা উচিত’

0
94
press club newspaper
সংবাদপত্রের কালো দিবস উপলক্ষে প্রেসক্লাবে আয়োজিত আলোচনা সভায় অতিথিরা: অর্থসূচক
press club newspaper
সংবাদপত্রের কালো দিবস উপলক্ষে প্রেসক্লাবে আয়োজিত আলোচনা সভায় অতিথিরা: অর্থসূচক

সাংবাদিকরা বিভক্ত হয়ে আছেন। চিন্তা-চেতনায় তাদের নিরপেক্ষ থাকা উচিত বলে জানিয়েছেন বিশিষ্ট কলামিষ্ট ও বুদ্ধিজীবী ফরহাদ মাজাহার।

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘সংবাদপত্রের কালো দিবস’ উপলক্ষে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মাজাহার বলেন, সাংবাদিকরা কেউ আওয়ামীপন্থী, কেউ বিএনপিপন্থী। নিজেদের মধ্যে বিভক্তি থাকলে কিভাবে অধিকার আদায়ে বিদ্রোহ করবেন। অধিকার আদায় করতে হলে নিজেদের মধ্যে অবশ্যই ঐক্য আনতে হবে। সাংবাদিকরা দলীয় চেতনা থেকে বের হতে না পারলে মুক্ত চিন্তা সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, বিহারী ক্যাম্পে যে ঘটনাকে বিভিন্ন গণমাধ্যমে অত্যন্ত দুর্বলভাবে প্রচার করা হয়েছে। প্রকৃত ঘটনাকে ভালভাবে উপস্থাপন করা হয়নি। গণমাধ্যমের উচিত, ঘটনার প্রকৃত চিত্র জনসম্মুখে তুলে ধরা।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ডা. জাফর উল্লাহ চৌধুরী বলেন, সংবাদ  মাধ্যমের কালো দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী কিংবা বিএনপি নেত্রী কোনো বিবৃতি বা বাণী দেননি। কোনো সংবাদপত্রেও এই বিষয়ে বিশেষ কলাম লেখা হয়নি। এটা গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের জন্য কলঙ্কজনক।

বর্তমান প্রেক্ষাপটে সাংবাদিকদের অন্যায়-অত্যাচারের বিরুদ্ধে সোচ্ছার হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

বিএফইউজের সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন গাজী বলেন, গণমাধ্যমের সাহায্যে জনগণ জেনেছে, কলকাতায় নূর হোসেন গ্রেপ্তার হয়েছে। অথচ স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেছেন যে, গ্রেপ্তারকৃত আসামি আসলে নুর হোসেন কি-না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বিএফইউজের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমিন রোকনের সভাপতিত্বে এতে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএফইউজের মহাসচিব এম.এ. আজিজ, ডিইউজের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গির আলম প্রধান, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমেদ প্রমুখ।

জেইউ/এমআই