রংপুর মেডিক‌্যালের আগুন নিয়ন্ত্রণে

রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের তৃতীয় তলার সাত নম্বর ওয়ার্ডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুনে ১০টি বেড ও বিভিন্ন যন্ত্রাংশ পুড়ে গেছে। পরে ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) সকাল সোয়া ১০টার দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই ওয়ার্ডটি থেকে তাড়াহুড়া করে বের হওয়ার সময় ৩০ থেকে ৩৫ জন রোগী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, সোমবার সকাল সোয়া ১০ টার দিকে হাসপাতালের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে এক রোগীর বেডের নিচে থাকা পাপসে আগুন লাগে। পরে তা অন্য বেডেও ছড়িয়ে পরে। অনেক রোগী প্রচন্ড ধোয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। সকাল সাড়ে ১১টার দিকে দিকে ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

রংপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক সালেহ উদ্দিন আহমেদ জানান, হাসপাতালে আগুন লাগার খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে আসি। ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট এক ঘণ্টার চেষ্টা শেষে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। হাসপাতালের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে আগুনের সত্রপাত এ বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে বলা যাচ্ছে না।

হাসপাতালের পরিচালক ডা. রেজাউল করিম বলেন, আগুনের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেই। তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে আমরা ওই ওয়ার্ডের ৪০ জন রোগীকে নিরাপদে রাখার ব্যবস্থা করি। এ ঘটনায় আমরা তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। তদন্ত করার পর আমরা নিশ্চিত হতে পারবো অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে।

রংপুর মহানগর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ জানান, রোগী এবং তাদের স্বজনদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ পুলিশ কাজ করেছে। অগুন নিয়ন্ত্রণে আনার পর এখন হাসপাতালের পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক রয়েছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

 

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...