ঘূর্ণিঝড়ে ফিলিপাইনে নিহত ২ শতাধিক

গত বৃহস্পতিবার ঘূর্ণিঝড় রাই আঘাত হানে ফিলিপাইন্সে। বহু মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। চার লাখ মানুষ অস্থায়ী ক্যাম্পে। এদিকে দেশটির সার্বিক ছবিটি এখনো স্পষ্ট নয়। বোহোল প্রদেশে ঝড়ে দাপট সবচেয়ে বেশি ছিল। তবে দ্বীপরাষ্ট্রটির অন্য এলাকাতেও ঝড়ের ভয়াবহতা টের পাওয়া গেছে।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) সকালে ফিলিপাইন্সের বেসরকারি সূত্র সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, অন্তত ২০৮ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। তবে সরকারিভাবে এখনো কোনো সংখ্যা বলা হয়নি। শতাধিক মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কার কথা জানানো হয়েছে। তবে যে পরিমাণ মানুষ এখনো নিখোঁজ, তাতে মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

রোববার মধ্য ফিলিপাইন্সের বোহোল প্রভিন্সের গভর্নর আর্থার ইয়াপ প্রথম সরকারের তরফে বিবৃতি দেন। তিনি জানিয়েছেন, শুধুমাত্র বোহোলেই অন্তত ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে। চারশরও বেশি মানুষ নিখোঁজ। বোহোল প্রভিন্সের ৪৮ জন মেয়রের মধ্যে ৩৩ জন মেয়রের সঙ্গে তিনি কথা বলতে পেরেছেন। তারপরেই সামাজিক মাধ্যমে একটি পোস্ট করেন তিনি।

ইয়াপ জানিয়েছেন, সকলের সঙ্গে যোগাযোগ করে ওঠাই সম্ভব হয়নি এখনো। রাস্তাঘাট ভেঙে পড়েছে। ফলে সর্বত্র যাওয়াও সম্ভব হচ্ছে না। শুধুমাত্র তার অঞ্চলে অন্তত চার লাখ মানুষ অস্থায়ী ক্যাম্পে বসবাস করছেন। গোটা দেশে সংখ্যাটি সাত লাখেরও বেশি বলে মনে করা হচ্ছে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড় রাই অবশ্য ফিলিপাইন্সের সীমান্ত ছেড়ে এখন দক্ষিণ চীন সাগরের উপর নিম্নচাপ হয়ে অবস্থান করছে। সূত্র: ডিডাব্লিউ, এপি, রয়টার্স

অর্থসূচক/এএইচআর

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...