আফ্রিকা থেকে ফিরলে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক

আফ্রিকার কোনও দেশ থেকে প্রবাসীদের দেশে ফিরতে নিরুৎসাহিত করছে সরকার। আর যদি ফিরতেই হয় তাহলে তাদের অবশ্যই বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এই কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থাপনা সেনাবাহিনীকে দেওয়ার কথা চিন্তা করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ওমিক্রন নিয়ে আন্তমন্ত্রণালয় বৈঠকের পর তিনি এ মন্তব্য করেন।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘দেশে প্রথম করোনা চলে আসার ঘটনা আমাদের সকলেরই জানা আছে। ইতালি থেকে আগত যাত্রীদের মাধ্যমে দেশে যেভাবে করোনা চলে এসেছিল, এবার আর সেই ঝুঁকিতে যাওয়া যাবে না। এজন্য আফ্রিকা অঞ্চলের আক্রান্ত দেশগুলো থেকে যারাই দেশে আসবেন, তাদের দেশের সেনা সদস্যদের সহায়তায় বাধ্যতামূলক ১৪ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। আক্রান্ত অন্যান্য দেশের ক্ষেত্রে সেই দেশে কী রকম আক্রান্ত হয়েছে, তা দেখে একই রকম ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তিনি জানান, প্রাতিষ্ঠানিক এই কোয়ারেন্টিন দিয়াবাড়িতে হতে পারে। এছাড়া একশ’টির মতো হোটেলে এই ব্যবস্থা থাকবে, আর হোটেলের বেশিরভাগ খরচ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে দিতে হবে। একেবারে কেউ না দিতে পারলে, সেটা পরে বিবেচনা করা হবে।

ইতোমধ্যে গত এক মাসে ২৪০ জন আফ্রিকা থেকে দেশে এসেছেন। তাদের কেউ কেউ সরাসরি বাড়িতে চলে গেছেন বলে জানানো হলে মন্ত্রী বলেন, ‘এই যে লোকজন আমাদের ফাঁকি দিয়ে চলে গেলো, আমরা অ্যাড্রেস করতে পারছি না। তারা ওই দেশ থেকে এসেছে। মোবাইল ফোনটাও বন্ধ করে রেখেছে। ভুল ঠিকানা দিয়েছে। এই জিনিসগুলো কী রকম! এ জন্য আমরা ওইসব দেশ থেকে আসা লোকজনের ব্যাপারে বেশি কড়াকড়ি করবো। যারা আফ্রিকান দেশ থেকে আসবেন, তাদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন তো থাকবেই। আমরা ওখান থেকে আসতেই নিরুৎসাহিত করবো।’

সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেলা পর্যায় থেকে সর্বত্র সব ধরনের সামাজিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠানের পাশাপাশি সব কার্যক্রম পালনে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি নির্দেশনা প্রদান করেন।

অর্থসূচক/এমএস

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
মন্তব্য
Loading...