বিএসপিপি’র বার্ষিক সাধারণ সভা ও সেমিনার অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ সোসাইটি ফর ফার্মাসিউটিক্যাল প্রফেশনালস এসোসিয়েশনের সেমিনার ও বার্ষিক সাধারণ সভা-২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় অধ্যাপক ড. ইশতিয়াক মাহমুদকে সভাপতি এবং রকীব আহমেদকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৯ সদস্যের একটি কমিটি নির্বাচিত করা হয়।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) রাজধানীর হোটেল পূর্বানীতে এসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক ড. ইশতিয়াক মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনার ও বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ (বিসিএসআইআর)-এর চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. আফতাব আলী শেখ।

এছাড়া বিশেষ অতিথি ছিলেন রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)-এর উপদেষ্টা ড. মোহাম্মাদ মোস্তাক হোসেন এবং নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীব বিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. ফিরোজ আহমেদ।

“ডেঙ্গু, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট এবং এর চিকিৎসায় নতুন দিগন্ত” বিষয়ক সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. এএইচএম নুর নবী।

দেশের বিভিন্ন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিতে কর্মরত রসায়ন, প্রাণরসায়ন, ফলিত রসায়ন ও রাসায়নিক প্রযুক্তি এবং মাইক্রোবায়োলজিতে স্নাতক বা উচ্চ ডিগ্রীধারী প্রায় ২ হাজার পেশাজীবী বাংলাদেশ সোসাইটি ফর ফার্মাসিউটিক্যাল প্রফেশনালস এসোসিয়েশন (বিএসপিপি) এর সদস্য। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন, প্রাণরসায়ন, ফলিত রসায়ন ও রাসায়নিক প্রযুক্তি এবং মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের শিক্ষক, বিজ্ঞানী, গবেষকবৃন্দ এই সোসাইটিতে অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন। যারা দেশের ওষুধ সেক্টরের উন্নয়নে ক্রমাগত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন।

ঢাকা ও ঢাকার বাইরের বিভিন্ন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানির প্রায় ৩৫০ পেশাজীবী সদস্য উক্ত সেমিনার ও বার্ষিক সাধারণ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সেমিনারের মূল প্রবন্ধে অধ্যাপক ড. এএইচএম নুর নবী বাংলাদেশে ডেঙ্গুর প্রেক্ষাপট, প্রভাব এবং এর চিকিৎসা বিষয়ে নতুন সম্ভাবনাসহ নানা বিষয় তুলে ধরেন।

প্রধান অতিথি বিসিএসআইআর-এর চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. আফতাব আলী শেখ সহ বিশেষ অতিথিবৃন্দ দেশের ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিতে কর্মরত রসায়ন, প্রাণরসায়ন, ফলিত রসায়ন ও রাসায়নিক প্রযুক্তি এবং অণুজীববিদদের ভূমিকার প্রশংসা করেন।

বক্তাগণ আগামী দিনে বিএসপিপ’ র সদস্যবৃন্দ আধুনিক ও বহুমাত্রিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের যুগোপযোগী ভূমিকা রাখবেন এবং উন্নত বিশ্বের দেশগুলোর সাথে তাল মিলিয়ে দেশের ওষুধ বিজ্ঞান বিষয়ক গবেষণায় গভীরভাবে সম্পৃক্ত হবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। ওষুধের গুণগতমান বাড়ানোসহ ফার্মাসিউটিক্যালগুলোতে বিশ্বমানের সেবা নিশ্চিত করার উপরও বক্তাগণ তাগিদ প্রদান করেন।

বার্ষিক সাধারণ সভা থেকে পরবর্তী তিন বছরের জন্য অধ্যাপক ড. ইশতিয়াক মাহমুদকে সভাপতি এবং রকীব আহমেদকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৯ সদস্যের একটি কমিটি নির্বাচিত করা হয়।

অর্থসূচক/এমআর/এমএস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •