দ্বিতীয় দিনের মতো মূল্য সংশোধন বাজারে

টানা পাঁচদিন উর্ধমুখী থাকার পর সোমবার থেকে মূল্য সংশোধন শুরু হয়েছে বাজারে। আজ মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) টানা দ্বিতীয় দিনের মতো বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে। তবে আজও বড়-মূলধনী কিছু কোম্পানির শেয়ারের দাম উর্ধমুখী থাকায় মূল্যসূচকে সংশোধনের প্রকৃত অবস্থা প্রতিফলিত হয়নি। বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমলেও আজ সূচক উল্টো বেড়েছে।

আজ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) অংশ নেওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে ২০ শতাংশের শেয়ারের দাম বেড়েছে। কমেছে ৭২ শতাংশের। বাকী ৮ শতাংশের দাম ছিল অপরিবর্তিত।

ডিএসইতে আজ ৩৭৬টি কোম্পানির শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে শেয়ারের দাম বেড়েছে ৭৫টির, আর দাম কমেছে ২৬৯টি কোম্পানির।

ডিএসইতে আজ সূচকের পাশাপাশি লেনদেনও কমেছে। আজ এই বাজারে ২ হাজার ৩৫২ কোটি টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে। গতকাল লেনদেনের পরিমাণ ছিল ২ হাজার ৭৫৫ কোটি টাকা। গতকালের তুলনায় ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৪০৩ কোটি টাকা বা প্রায় ১৫ শতাংশ।

আজ বাজারে সিমেন্ট এবং সার্ভিস সেক্টর ছাড়া বাকী সব খাতে বেশীরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে। একমাত্র সিমেন্ট খাতের চিত্র ছিল সম্পূর্ণ বিপরীত। এই খাতের ৭টি কোম্পানির মধ্যে ৪টির শেয়ারের দাম বেড়েছে, ১টির দাম ছিল অপরিবর্তিত। বাকী ২টি শেয়ারের দর হারিয়েছে।

পতনের তীব্রতা বেশি ছিল পাট এবং পেপার ও প্রিন্টিং খাতে। এই ২ খাতের শতভাগ কোম্পানি আজ শেয়ারের দর হারিয়েছে। এর পরেই ছিল প্রকৌশল, বীমা ও আর্থিক খাতের অবস্থান। আর্থিক খাতে ৮২ শতাংশ, প্রকৌশল খাতে ৭৯ শতাংশ এবং বীমা খাতে ৭৮ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে।

ডিএসইতে প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আজ ৩ দশমিক ৮৪ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ৩৩১ দশমিক ৩৯ পয়েন্ট হয়েছে।