পাঁচ মাসে ১ লাখ ২৮ হাজার নতুন বিনিয়োগকারী

0
98
BO-Acount
৫ কোম্পানির লভ্যাংশ বিও অ্যাকউন্টে পাঠানো হয়েছে

BO-Acountপুঁজিবাজারের মন্দা অবস্থার মধ্যেও থেমে নেই বিও (বেনিফিশায়ারি ওনার্স) খোলার প্রবণতা। প্রতিমাসেই বাজারে আসছে নতুন বিনিয়োগকারী। এরই ধারবাহিকতায় গত পাঁচ মাসে পুঁজিবাজারে এক লাখেরও বেশি বিনিয়োগকারী এসেছে। সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি অব বাংলাদেশ (সিডিবিএল) সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

সূত্র মতে, চলতি বছরের জানুয়ারির ৩০ তারিখ পর্যন্ত বিও হিসাবধারীর সংখ্যা ছিল ২৮ লাখ ৫৬ হাজার ৪৫১ টি। মে মাসের ৩১ তারিখ পর্যন্ত এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৯ লাখ ৮৪ হাজার ৯৭৬ টি। অর্থাৎ পাঁচ মাসে বিও বেড়েছে এক লাখ ২৮ হাজার ৫২৫ টি।

বিশ্লেষকদের মতে, চলতি বছরের পাঁচ মাসে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) একাধিক কোম্পানিকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) অনুমোদন দিয়েছে। তাই আইপিওকে কেন্দ্র করে প্রতি মাসেই বিও অ্যাকাউন্টের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

বিনিয়োগকারীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, তুলনামূলকভাবে নতুন কোম্পানির শেয়ার লেনদেন শুরুর স্বল্প সময়ের মধ্যে লভ্যাংশ ঘোষণার সম্ভাবনায় এসব শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ বেড়ে যায়। অনেক বিনিয়োগকারী আইপিও শেয়ার পাওয়ার আশায় নিজে একাধিক এবং আত্মীয়স্বজনের নামে বিও হিসাব খুলেছেন বলে বিভিন্ন ব্রোকারেজ হাউসের কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

এছাড়া ২০১০ সালের ধ্বসে বেশিরভাগ বিনিয়োগকারীর ঋণাত্মক ইক্যুইটি (ইক্যুইটি মাইনাস) হয়ে গেছে। তাই ক্ষতি পোষাতে অনেকেই নতুন করে বিও অ্যাকাউন্ট খুলছেন।

জানা যায়, জানুয়ারীতে পুরুষ বিনিয়োগকারীর সংখ্যা ছিল ২১ লাখ ১০ হাজার ৮৩৪ টি। আর মে মাসে ৮৭ হাজার ৭৫০ টি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১ লাখ ৯৮ হাজার ৫৮৪ টি। এদিকে নারী বিনিয়োগকারীর সংখ্যা ৪০ হাজার ৫৩৫ টি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৭৬ হাজার ৩৮৪ টি। জানুয়ারীতে এই অ্যাকাউন্টধারীর সংখ্যা ছিল ৭ লাখ ৩৫ হাজার ৮৪৯ টি।

অপরদিকে স্থানীয় বিনিয়োগকারীর সংখ্যা বেড়েছে ১ লাখ ২২ হাজার ৫৬৬ টি। যা জানুয়ারী মাসে ছিল ২৭ লাখ ৩ হাজার ৪৯২ টি। আর মে মাসে দাঁড়িয়েছে ২৮ লাখ ২৬ হাজার ৫৮ টি। এ সময়ে বিদেশে অবস্থানরত বিনিয়োগকারীর সংখ্যা বেড়েছে ৫ হাজার ৭১৯ টি। জানুয়ারিতে এই সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৪৩ হাজার ১৯১ টি। আর মে মাসে দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৪৮ হাজার ৯১০ টি।

আলোচিত সময়ে কোম্পানি বিও সংখ্যা বেড়েছে ২৪০ টি। যা জানুয়ারিতে ছিল ৯ হাজার ৭৬৮ টি। আর মে মাসে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৮ টি।

তবে মাসওয়ারি হিসাবে দেখা যায়, সবচেয়ে বেশি বিও অ্যাকাউন্ট বেড়েছে ফেব্রুয়ারী মাসে। এই মাসে ৫২ হাজার ৩৭২ জন নতুন বিনিয়োগকারী বাজারে এসেছে। ফেব্রুয়ারী তে মোট বিও অ্যাকাউন্টের সংখ্যা ছিল ২৯ লাখ ৪ হাজার ৮২৩ টি।

আলোচিত পাঁচ মাসের মধ্যে বিও অ্যাকাউন্ট খোলার প্রবণতা এপ্রিলে কমেছে। এই মাসে বাজারে এসেছে ১৩ হাজার নতুন বিনিয়োগকারী। এপ্রিলে মোট বিও অ্যাকাউন্টের সংখ্যা ছিল ২৯ লাখ ৬৮ হাজার ৭৫৮ টি। আর মার্চ মাসে বিও বেড়েছে ৫০ হাজার ৯০৮ টি। এই মাসে মোট বিও অ্যাকাউন্টের সংখ্যা ছিল ২৯ লাখ ৫৫ হাজার ৭৩১ টি।

এসএ/এসএম