গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক ফল প্রকাশ আজ হচ্ছে না

বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তির প্রথম ধাপের প্রাথমিক আবেদন শেষ হলেও এখনও ফলাফল প্রকাশ করা হয়নি। আজ রোববার (২২ আগস্ট) সেই ফল প্রকাশ করার কথা থাকলেও টেকনিক্যাল কারণে তা প্রকাশ করা হচ্ছে না।

আগামীকাল সোমবার (২৩ আগস্ট) ভর্তি সংক্রান্ত টেকনিক্যাল কমিটির সভা করে ফলাফল প্রকাশের দিন নির্ধারণ করা হবে বলে জানা গেছে।

দেশের ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক বাছাই কাজ শেষ হয়েছে। প্রথম ধাপে সুযোগ পাওয়া শিক্ষার্থীরা চূড়ান্ত ধাপে আবেদন করার সুযোগ পাবেন। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে দ্বিতীয় ধাপে আবেদন কার্যক্রম শুরু করা হবে। গতকাল (২১ আগস্ট) রাতে অনলাইনে অনুষ্ঠিত গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্যদের সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

এ বিষয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার টেকনিক্যাল কমিটির আহ্বায়ক ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর গণমাধ্যমকে বলেন, প্রথম ধাপে প্রাথমিক বাছাই করা শিক্ষার্থীদের ফলাফল প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। রোববার এ ফল প্রকাশ করার চেষ্টা থাকলেও টেকনিক্যাল কারণে তা প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না। কী পদ্ধতিতে এ ফলাফল প্রকাশ করা হবে সেটা এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে আগামীকাল সোমবার এ বিষয়ে টেকনিক্যাল কমিটি সভা করবে। সেখানে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে চলতি সপ্তাহের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

তিনি বলেন, প্রাথমিক আবেদনে যারা নির্বাচিত হবেন শুধুমাত্র তাদের এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানানো হবে। ১ সেপ্টেম্বর থেকে চূড়ান্ত আবেদন শুরু হবে। আবেদন ফি ১২০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। দ্বিতীয় ধাপের আবেদন শেষে দ্রুত ভর্তি পরীক্ষার সময় প্রকাশ করা হবে। গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে হবে ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা শেষ করে তার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। গুচ্ছভুক্ত বিজ্ঞান বিষয়ে ১ লাখ ৩১ হাজার জনকে ভর্তি পরীক্ষায় সুযোগ দেওয়া হবে। মানবিক ও বাণিজ্য বিভাগে যারা আবেদন করেছেন তাদের সবাইকে ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ দেওয়া হবে। তিন বিষয়ে তিন লাখেরও বেশি আবেদন জমা পড়েছে বলে জানান তিনি।

গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো- শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

অর্থসূচক/কেএসআর