বাজারে কমেছে সবজি ও মুরগির দাম

0
93
Sobji-broylar
কমেছে সবজি ও মুরগরি দাম
Sobji-broylar
কমেছে সবজি ও মুরগরি দাম

রাজধানীর কাঁচাবাজারে বেশিরভাগ সবজির দর কমেছে। সেই সঙ্গে কমেছে লেয়ার ও ব্রয়লার মুরগির দামও।

শনিবার কারওয়ান বাজার কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা যায়, ঢেঁড়স, করলা, ঝিংঙ্গা, চিচিঙ্গা, পটল, ধুন্দল, পেঁপে, শসা, কাঁচামরিচ, বেগুন, ধনেপাতাসহ বেশিরভাগ সবজির দর কেজিতে ৫ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত কমেছে।
বাজারে চালের দর অপরিবর্তিত আছে।

মো. আলতাফ নামে এক চাল বিক্রেতা জানান, বাজেট চূড়ান্ত হওয়ার পর চালের দাম কিছুটা বাড়তে পারে।

এদিকে, কারওয়ান বাজার কিচেন মার্কেটে, দেশি মুরগি কেজি প্রতি ২০ টাকা কমে ৩৫০ টাকা, ব্রয়লার মুরগি ১৫ টাকা কমে ১৪৫ টাকা ও লেয়ার মুরগি ৫ টাকা কমে ১৬০ টাকা, পাকিস্তানি মুরগি ২৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাছের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ইলিশ, কাতল, রুইসহ বেশিরভাগ মাছেরই দাম অপরিবর্তিত আছে।]

আজকের বাজার দর:

সবজি: কারওয়ান বাজার কাঁচা বাজারে বেগুন কেজিপ্রতি ২৫-২৮ টাকা, কাঁচা মরিচ কেজিপ্রতি ৩০-৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া, ঝিঙ্গা ২৫-৩০ টাকা, চিচিঙ্গা ২০ টাকা, ধুন্দল ১৮-২০ টাকা, আলু ১৮ টাকা, কাঁকরোল ২৫ টাকা, ফুলকপি ৩৫ টাকা, বাঁধাকপি ৩৫ টাকা, গাজর ৩৫-৪০  টাকা, করলা ২০ টাকা, উচ্ছে ২৫-৩০ টাকা, ঢেঁড়স ২০ টাকা, পটল ২০-২২ টাকা, পেঁপে ৩০ টাকা ও কচুর মুখী কেজি প্রতি ৪০ টাকা, কচুর লতি বিক্রি হচ্ছে ৩৫-৪০ টাকা কেজিতে।
প্রতি কেজি বরবটি ২৫-৩০ টাকা, শসা ১৮-২০ টাকা, ছোট আকারের মিষ্টি কুমড়া ২০ টাকা, জালি কুমড়া ১৫-২০ টাকা, লাউ ২০থেকে ২২ টাকা, বড় কাঁচকলা প্রতি হালি ১৫ থেকে২০  টাকা, কাগজি লেবুর হালি ৮ টাকা, লম্বা লেবুর হালি ১০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। সজিনা ৩০-৩৫ টাকা কেজিতে বিক্রি করছেন দোকানিরা।

এছাড়াও প্রতি কেজি টমেটো ৩০ টাকা, লালশাক আটি ৭ টাকা, ডাটা শাক বড় আটি ২০ টাকা, পুঁইশাক ১৫ টাকা, কলমি শাক ৪ টাকা, পাট শাক২ টাকা, লেটুস পাতা প্রতি পিস ৫ টাকা ও পুদিনা পাতা আটি ১০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে বাজারে। ধনেপাতা (১০০ গ্রাম) ২০ টাকা।

মুদি:
এদিকে কারওয়ান বাজার কিচেন মার্কেটে, দেশি পেঁয়াজ ৩০ টাকা, ভারতীয় পেঁয়াজ ২৮ টাকা,আদা ১৬০ টাকা, চায়না রসুন ৮০ টাকা, দেশি রসুন ৭০ টাকা ও শুকনা মরিচ  ১৬০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে।
এছাড়া, প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেল ৯০টাকা,  ১ লিটার বোতলবদ্ধ সয়াবিন তেল (তীর)১১৫ টাকা,১ লিটার রূপচাঁদা পলিপ্যাক ১১৩ টাকা,  দেশি মসুর ডাল ৯৮ টাকা, ভারতীয় মসুর ডাল ৮০ টাকা, দেশি মুগ ডাল ১১৫ টাকা, অ্যাংকর ডাল ৪৫ টাকা, আস্ত ছোলার ডাল ৫৫ টাকা, ভাঙা ছোলার ডাল ৬০ টাকা, খোলা চিনি ৪৫ টাকা, প্যাকেট চিনি ৪৮ থেকে ৫০ টাকা,আটা ৩৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে ।এখানে
ফার্মের প্রতি হালি লাল ও সাদা ডিম ২৮ টাকা, দেশি মুরগির ডিম ৩৮ টাকা,হাঁসের ডিম বিক্রি হচ্ছে ৩৪ টাকা দরে।

চাল:
এই বাজারে প্রতি কেজি নাজির শাইল চাল ৫০ থেকে ৫২ টাকা, মিনিকেট ৪৮-৫০ টাকা, লতা আটাশ ৪০-৪২ টাকা, মোটা চাল ৩৫ -৩৬ টাকা, পাইজাম ৩৮ থেকে ৪০ টাকা, পারিজা ৪০ টাকা, চিনিগুঁড়া৭০থেকে ৮০ টাকা, বি আর আটাশ ৩৮-৪০ টাকা, বি আর ঊনত্রিশ ৪২-৪৪ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

মাছ:
বাজারে ৬০০-৭০০ গ্রাম ওজনের এক জোড়া ইলিশ ১ হাজার টাকা,৮০০-৯০০ গ্রামের ইলিশের জোড়া থেকে ১ হাজার ২০০ টাকা, বড় আকারের কাতল(১২-১৫ কেজি) প্রতি কেজি  ৪০০ টাকা, মাঝারি কাতল ২৫০ টাকা, রুই ২২০ থেকে ২৪০ টাকা, তেলাপিয়া ১২০ টাকা, চায়না পুঁটি ১৬০ টাকা, পাঙ্গাস ১২০-১৩০ টাকা, বড় চিংড়ি ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা, চাষের কৈ ২৫০-৩০০ টাকা, বড় আকারের সিলভার কার্প ১৭০ টাকা, শিং মাছ ৬০০ থেকে ৬৫০ টাকা, নলা মাছ ১৪০ টাকা,
ছোট চিতল ৩০০, চ্যাং ৩০০, তপশে ৩০০, ভোলা ২০০, ডান্ডি বেলে ১২০টাকি ২৫০,কাঁচকি ২০০, ফলই ২৭০, ট্যাংরা ৫০০  টাকা ও চাপিলা ১৮০ থেকে ২০০ টাকা, বেলে ৩০০-৪০০, শোল ৪০০টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

মাংস:
বাজারে  প্রতি কেজি গরুর মাংস ২৮০ টাকা, খাসির মাংস ৪৫০-৪৬০ টাকা, দেশি মুরগি ৩৫০ টাকা, ব্রয়লার মুরগি ১১৪৫ টাকা, লেয়ার মুরগি ১৬০ টাকা, পাকিস্তানি মুরগি ২৪০-২৫০ টাকা, হাঁস ২৮০-৩০০ টাকা ও কবুতরের বাচ্চা ২০০ টাকা জোড়া বিক্রি করছেন দোকানিরা।

ইউএম/ আর