খুলনার দুই হাসপাতালে করোনায় ১১ জনের মৃত্য

গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনার দুই করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ১১ জনের মধ্যে রয়েছেন খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের ছয়জন, খুলনার বেসরকারি গাজী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পাঁচ জন। সেখানে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন তারা।

খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের ফোকাল পারসন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হাসপাতালের রেড জোনে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ১৩০ শয্যার হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন ছিলেন ১৬৯ জন। এরমধ্যে রেড জোনে ৯৯ জন, ইয়ালো জোনে ২৫ জন, আইসিইউতে ১৯ জন এবং এইচডিইউতে ২০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সেখানে ভর্তি হয়েছেন ৪১ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৪ জন।

মৃত ছয়জন হলেন- খুলনার খানজাহান আলী থানা এলাকার আকলিমা (৩৫), সাতক্ষীরার তালার মো. সিফাতুল্লাহ (৮৫), খুলনার মৌলভীপাড়ার ফেরদৌসী ইসলাম (৫৮) ও নাইলী (৬৭), খুলনার ডুমুরিয়ার আম্বিয়া (৩৫) এবং বাগেরহাটের মোংলার প্রদীপ কুমার (৬৩)।

এদিকে বেসরকারি গাজী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে।

হাসপাতালের স্বত্তাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত তার হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৯৮ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২৬ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩ জন। আইসিইউতে রয়েছেন চারজন। আর এইচডিইউতে আছেন নয়জন।

মৃত পাঁচজন হলেন- বাগেরহাট সদরের লাউপোল এলাকার নারায়ণ (৭১), খুলনার বটিয়াঘাটার জেবুন্নেসা (৬৭), নড়াইল লোহাগড়ার কতাকল এলাকার আব্দুর রহমান (৬০), গোপালগঞ্জের আড়পাড়ার সুফিয়া বেগম (৪৫), খুলনার হরিণটানা এলাকার এম এ হাশেম (৬৮)।

এছাড়া খুলনা ২৫০ জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের গত ২৪ ঘণ্টায় কোনো রোগী মারা যাননি।

অর্থসূচক/এমএস