ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে ভারতে মহামারি ঘোষণা

করোনা মহামারির এ তাণ্ডবের মধ্যেই নতুন আতঙ্ক ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা মিউকোরমাইকোসিস। এরইমধ্যে ভারতের মহারাষ্ট্র প্রদেশে ৯০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের সংক্রমণে। ভারতের অন্য প্রদেশগুলো থেকেও মৃত্যুর খবর আসছে।

এ অবস্থায় ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা মিউকোরমাইকোসিসকে মহামারি ঘোষণা করেছে ভারত সরকার। এ রোগটিকে মহামারি ঘোষণার জন্য দেশটির সব রাজ্যকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছিল। সেই চিঠিতে রোগটিকে ‘মহামারি আইন’-এর অধীনে তালিকাভুক্ত করার কথা বলা হয়েছে। ফলে এখন থেকে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস রোগ সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে জানাতে হবে রাজ্যগুলোকে। ঠিক যেমনটা হচ্ছে করোনা ভাইরাসের ক্ষেত্রে।

আজ বৃহস্পতিবার (২০ মে) কলকাতার প্রভাবশালী সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, মহামারি সংক্রান্ত বিষয়টি নিয়ে রাজ্যগুলোকে চিঠি পাঠিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব লব আগারওয়াল। সেই চিঠিতে তিনি লেখেন, ‘মিউকরমাইকোসিসের শনাক্তকরণ, নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত নির্দেশিকা সব সরকারি, বেসরকারি হাসপাতাল এবং মেডিকেল কলেজগুলোকে মেনে চলতে হবে’।

করোনা রোগীদের ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হওয়ার বেশ কয়েকটি ঘটনা সামনে আসার পর নড়েচড়ে বসে স্বাস্থ্য বিভাগ। করোনা রোগী ছাড়া অন্যরাও আক্রান্ত হচ্ছেন এই রোগে। ব্ল্যাক ফাঙ্গাস রোগে নাকের ওপর কালো ছোপ, দেখতে অসুবিধা হওয়া, বুকে ব্যথা, শ্বাসকষ্টের মতো সমস্যা দেখা দিচ্ছে।

মহারাষ্ট্রে ইতোমধ্যেই দেড় হাজারের বেশি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের রোগী চিহ্নিত হয়েছেন। ৯০ জনের মৃত্যুও হয়েছে এই রোগে। পশ্চিমবঙ্গেও পাঁচজনের শরীরে এই রোগের উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে।

অর্থসূচক/কেএসআর