৬ টেস্টে ৩ জয় আফগানদের

আবুধাবিতে দ্বিতীয় টেস্টে চতুর্থ দিন থেকেই জয় হাতছানি দিচ্ছিল আফগানিস্তানকে। ইনিংস ব্যবধানে জয়ের সম্ভাবনাও তৈরি হয়েছিল। শেষ পর্যন্ত এই টেস্ট ৬ উইকেটে জিতে নিয়েছে আফগানিস্তান। ৬ টেস্ট খেলা আফগানিস্তানের এটি তৃতীয় জয়।

যদিও আফগানিস্তানের জয়ের অপেক্ষা বাড়িয়েছেন শন উইলিয়ামস এবং ডোনাল্ড তিরিপানো। চতুর্থ দিন ১৪২ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলার পর এই দুজনে উইকেটে জমে গিয়েছিলেন। তাদের ব্যাটে ভর করেই সেই ৭ উইকেট নিয়েই ২৬৬ রান করে চতুর্থ দিন শেষ করেছিল জিম্বাবুয়ে। পঞ্চম দিনেও এই দুজনে দারুণ খেলেছেন। সেঞ্চুরির আশা জাগিয়েও তিরিপানো এলবিডব্লিউ হয়েছেন রশিদ খানের বলে ৯৫ রান করে। অবশ্য উইলিয়ামস দারুণ খেলে ক্যারিয়ার সেরা অপরাজিত ১৫১ রানের ইনিংস খেলেছেন তিনি।

যদিও শেষ দিকে তাঁকে কেউ সঙ্গ নিতে পারেননি। ব্লেসিং মুজারাবানি শেষ দিকে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করে আউট হয়েছেন ১৭ রান করে। মূলত তাদের এই লড়াইয়ের কারণেই আফগানিস্তানের সামনে ১০৮ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিতে পারে জিম্বাবুয়ে। আফগানিস্তানের হয়ে এই টেস্টে একাই ১১ উইকেট নিয়েছেন রশিদ খান। প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেট তুলে নিয়েছেন এই স্পিনার।

ছোটো লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি আফগানদের। অতিরিক্ত আক্রমণাত্মক হতে গিয়ে প্রথম ওভারেই উইকেট বিলিয়ে দেন জাভেদ আহমদি। দ্বিতীয় উইকেটে ইব্রাহিম জাদরান এবং রহমত শাহ মিলে ৮১ রানের জুটি গড়েন। ইব্রাহিম ২৯ রান করে ফিরলে এই জুটি ভাঙে। এরপর শহিদুল্লাহ কোনো রান করেই ফিরে গেলে কিছুটা চাপে পড়ে আফগানিস্তান। রহমত হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে ব্যক্তিগত ৫৮ রানে বোল্ড হয়েছেন রায়ান বার্লের বলে বোল্ড হয়ে। এরপর নাসির জামাল (৪) এবং হাসমতউল্লাহ শহিদি (৬) মিলে আফগানিস্তানকে জিতিয়ে মাঠ ছেড়েছেন।

নিজেদের প্রথম ইনিংসে আফগানিস্তান ৪ উইকেট হারিয়ে ৫৪৫ রান করে ইনিংস ঘোষণা করেছিল আফগানরা। বড় রানের জবাবে খেলতে নেমে ২৮৭ রানে অল আউট হয়ে ফলোঅনে পড়েছিল জিম্বাবুয়ে।

 

অর্থসূচক/এএইচআর