দাবি না মানলে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে

0
83
মানববন্ধন
সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর দাবিতে মানববন্ধন

মানববন্ধন
সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর দাবিতে মানববন্ধন

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর দাবি মেনে না নিলে কঠোর আন্দোলনে যাবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের নেতারা।

তারা বলেন, সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩০ থেকে বাড়িয়ে ৩৫ বছরে উন্নীত করার দাবি শুধু চাকরি প্রার্থীদের নয়, এই দাবি এখন লাখ লাখ অসহায় বৃদ্ধ বাবা-মায়ের। তাই এই ন্যায্য দাবি মেনে নিতে হবে।

শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বয়স বাড়াও সুযোগ দাও, সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা সাধারণ ছাত্রদের জন্য ৩৫ বছরে করার দাবিতে এক মানববন্ধনে এ দাবি জানান তারা। মানববন্ধনের আয়োজন করে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ।

মানববন্ধনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মুক্তিযুদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড, সিলেট জেলা ছাত্র পরিষদ, যশোর জেলা ছাত্র পরিষদ, বাংলা কলেজ ছাত্র পরিষদসহ বেশ কয়েকটি জেলার ছাত্ররা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় বক্তারা বলেন, আমরা আর অবহেলিত থাকতে চাই না। আমাদের ন্যায্য দাবি পেতে চাই। আশা করি সরকার লাখ লাখ উচ্চ শিক্ষিত বেকারদের দীর্ঘদিনের এই দাবি মেনে নেবে।

বক্তারা আরও বলেন, বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থা খাতা-কলমে ২৩ বছরে শিক্ষা জীবন শেষ হলেও পকৃতপক্ষে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার বয়স শেষ হয় ২৭ থেকে ২৮ বছর বয়সে। এর মূল কারণ শিক্ষাজীবনের সেশনজট। আমাদের শিক্ষাজীবন শেষে চাকরি প্রস্তুতি নিতে নিতে সরকারি চাকরি বয়স শেষ হয়ে যায়। তাই সরকারি চাকরি নিয়োগ আমাদের যোগ্যতার ভিত্তিতে হওয়া দরকার। যোগ্যতার সঙ্গে আমাদের বয়সের কোনো সম্পর্ক নেই।

উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদের স্পীকার ৭১ নম্বর বিধিতে জনগুরুত্বপূর্ণ নোটিশের ওপর আলোচনার সময় সরকারি চাকরিতে যোগদানের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার প্রস্তাব করেন।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের সভাপতি মো. ইমতিয়াজের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন- সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক শেখ রবিউল ইসলাম প্রমুখ।

জেইউ/কেএফ