অভ্যুত্থানের আগে মিয়ানমারকে ৩৫ কোটি ডলার দেয় আইএমএফ

অভ্যুত্থানের ঠিক আগেই মিয়ানমারকে বড় ধরনের আর্থিক সহায়তা দিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। কোভিড সহায়তা প্রকল্পের অংশ হিসেবে মিয়ানমারকে নগদ দেওয়া হয়েছে ৩৫ কোটি ডলার।

জরুরি সহায়তা প্যাকেজের আওতায় লেনদেনের ভারসাম্য রক্ষায় এই অর্থ পাঠিয়েছে আইএমএফ। এই অর্থ ব্যয়ের ক্ষেত্রে কোনো ধরনের কোনো শর্ত নেই। আইএমএফ’র আর্থিক সহায়তার কয়েকদিন পরই দেশটির সেনা কর্মকর্তারা অভ্যুত্থান ঘটিয়ে নির্বাচিত সরকারের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নেয়।

আইএমএফের এক মুখপাত্র রয়টার্সকে বলেন, ঘটনাক্রমের ওপর আমরা নজর রাখছি। অর্থনীতি ও জনগণের ওপর এর কী প্রভাব পড়বে, তা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। একই সঙ্গে তিনি রয়টার্সকে নিশ্চিত করেছেন, গত সপ্তাহে এই টাকা মিয়ানমারে পাঠানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের পর পরই এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, আমরা জেনারেলদের বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে পারি। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশটিতে বিদেশি অর্থসাহায্য পাঠানোর বিষয়ে পর্যালোচনার প্রয়োজন হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্র আইএমএফ-এর প্রভাবশালী শেয়ারহোল্ডার। গত সাত মাসে তারা মিয়ানমারকে করোনা মোকাবিলায় ৭০ কোটি ডলার সহায়তা পাঠিয়েছে। ১৩ জানুয়ারি আইএমএফ এক বিবৃতিতে বলেছিল, প্রদত্ত অর্থ মিয়ানমারকে করোনা মোকাবিলায় সাহায্য করবে। এছাড়া দেশটির ক্ষতিগ্রস্ত খাত এবং দুর্বল জনগোষ্ঠীকে সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে সহায়তার কাজে ব্যয় করা হবে।

অর্থসূচক/কেএসআর