বিরোধীদলের নির্বাচন বন্ধের দাবি অযৌক্তিকঃ ইনু

Inuবিরোধী দল দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বন্ধের যে দাবি করছে তা অযৌক্তিক ও অসাংবিধানিক বলে দাবি করেছেন নির্বাচনকালীন সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি বিষয়কমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

তবে সংবিধানকে সমুন্নত রেখে রাজনৈতিক সমঝোতার পথ সব সময়ই খোলা আছে বলে জানান তিনি।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে বঙ্গবন্ধু একাডেমী আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন।

আগামি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন ক্ষমতা কুক্ষিগত রাখার জন্য নয় দাবি করে হাসানুল হক ইনু বলেন, সরকার সংবিধান সমুন্নত রাখতে বদ্ধ পরিকর। সরকার জনগণের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। পাশাপাশি সন্ত্রাস, নৈরাজ্য বন্ধ করে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শেষ করবে যথা সময়ে।

তিনি বলেন,  সংবিধান মেনেই বিরোধীদলকে সমঝোতার পথে আসতে হবে। এর আগে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা বন্ধ করতে হবে।  জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গ ছাড়তে হবে।

বিরোধীদল কালক্ষেপণের নীতি গ্রহণ করেছে এমন মন্তব্য করে ইনু বলেন, তফসিল ঘোষণার আগে ২/৩ বছর সময় ছিল সমঝোতা বা আলাপ আলোচনার জন্য। কিন্তু তারা (বিরোধীদল) কালক্ষেপণের নীতি গ্রহণ করে একদিকে জল ঘোলা করেছে, অন্যদিকে যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষা করার চেষ্টা করেছে।

মন্ত্রী বলেন,  জাতি আজ মোড় বদলের মুখে। একদিকে নির্বাচনের জন্য প্রার্থীরা মাঠে গেছেন। আরেকদিকে বিএনপি-জামায়াত নাশকতার পথ গ্রহণ করেছে। সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য কঠোরভাবে দমন করা হবে। তাদের চিরতরে উচ্ছেদ করা হবে। তবে, সংবিধান অনুযায়ীই নির্বাচন করতে হবে বলে জানান তিনি।

ঢাকা মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ আহ্বায়ক চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সাম্যবাদী দলের নেতা হারুণ চৌধুরী, জাসদ নেতা মীর হোসেন আখতার, কৃষক লীগ নেতা এমএ করিম প্রমুখ।

ইকা/এআর