‘চ্যাম্পিয়ন’ বসুন্ধরা কিংসের খেলোয়াড়দের সংবর্ধনা

বসুন্ধরা কিংস দলটি পেশাদার ফুটবলে নাম লেখানোর পর থেকেই লালের রাজত্ব চলছে। ফেডারেশন কাপে আরো একবার ‘চ্যাম্পিয়ন’ লেখা সেই লাল জার্সিতে ছেয়েছে বিজয়ের মঞ্চ। মাত্র তিন বছর আগে ফুটবল অঙ্গনে পা রাখা বসুন্ধরা কিংস এর মধ্যেই পরপর দুইবার অর্জন করেছে শিরোপার মুকুট। এবং এবারের ফেডারেশন কাপের অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন।

লাল জার্সির এই বন্দনা দেশের মিডিয়া গন্ডি ছাপিয়ে গড়িয়েছে স্প্যানিশ মিডিয়া পর্যন্ত। দেশের ফুটবলের খবর সুদূর স্পেনের শীর্ষ সংবাদমাধ্যমে প্রকাশের এমন নজির আগে কখনো দেখা যায়নি।

বসুন্ধরা কিংস এবং খেলোয়াড়দের তাক লাগানো পারফরমেন্সে মুগ্ধ হয়ে এবং তাদের আরও ভালো খেলার অনুপ্রেরণাস্বরূপ বসুন্ধরা গ্রূপের ভাইস চেয়ারম্যান, সাফিয়াত সোবহান দলের সেরা তিনজনকে বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের পক্ষ থেকে সৌজন্য চেক প্রদান করেন।

সন্মানী চেক প্রাপ্তরা হলেন ব্রাজিলের রবসন দি সিলভা রবিনহো, ইরানি ফুটবলার খালেদ শাফেয়ী এবং জাতীয় দলের গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো।

দুর্দান্ত এবং অতিমানবীয় পারফর্মেন্সের জন্য গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো-কে প্রদান করা হয় পাঁচ লক্ষ টাকা। যার নৈপুণ্যে বিস্মিত এবং মুগ্ধ হয়েছেন গ্রূপের ভাইস চেয়ারম্যান, সাফিয়াত সোবহান। এক অভিব্যক্তিতে তিনি বলেন, ‘জিকোর অতিমানবীয় কিপিংয়ের জন্যেই হেরেছে বিপক্ষ দল’। জিকোর নৌপুণ্যের কারনে, তিনি তার টাইটেল দেন দ্যা ওয়াল।

উল্ল্যেখিত বিদেশি খেলোয়াড়দের প্রত্যেককে প্রদান করা হয় আড়াই হাজার ডলার এর চেক।

বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেডকোয়ার্টার ২ এ স্বল্প পরিসরে বসুন্ধরা গ্রূপের ভাইস চেয়ারম্যান, সাফিয়াত সোবহান এর পক্ষ থেকে খেলোয়াড়দের হাতে চেক এর ডামি কপি তুলে দেন উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ।

উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, মো. ইমরুল হাসান (ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর এন্ড হেড অফ একাউন্টস এন্ড ফাইন্যান্স; ইডব্লিউপিডি এবং বিসিডিএল, সভাপতি- বসুন্ধরা কিংস), ক্যাপ্টেন (অব.) শেখ এহসান রেজা (চিফ হিউমান রিসোর্স অফিসার, সেক্টর-এ, বসুন্ধরা গ্রুপ), মাহবুব আলম (চিফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লি.), আব্দুস শুকুর, (সি ও ও, সাপ্লাই চেইন, সেক্টর-এ, বসুন্ধরা গ্রূপ), জাকারিয়া জালাল (হেড অফ সেলস, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লি.), সরওয়ার হোসেন সোহাগ (জি এম, সাপ্লাই চেইন, সেক্টর-এ, বসুন্ধরা গ্রূপ) এবং বসুন্ধরা কিংস কোচ অস্কার ব্রুজোন।

বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের কর্তৃপক্ষের এক বিব্বৃতিতে বলা হয়, বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের পক্ষ থেকে বসুন্ধরা কিংসকে অভিনন্দন এবং শুভ কামনা এই যে, ঘরোয়া ফুটবল কিংবা দক্ষিণ এশিয়া নয়, এএফসি কাপের মতো আন্তর্জাতিক আসরে নিজেদের আলাদা করে চেনানোর চেষ্টা করবে বসুন্ধরা কিংস।

অর্থসূচক/এমএস

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •