জানুয়ারির মধ্যেই আসছে করোনা ভ্যাকসিন: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

চুক্তির আওতায় ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের উৎপাদিত টিকা জানুয়ারির মধ্যে দেশে আসছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

আজ সোমবার (১১ জানুয়ারি) মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমেদ কায়কাউসকে উদ্ধৃত করে তিনি এ কথা জানান।

এর আগে সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠক হয়। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী এবং সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রীরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন।

বৈঠকে অনির্ধারিত আলোচনায় কোন কোন বিষয় এসেছে- জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, করোনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। করোনার ভ্যাকসিন তো আসতেছে, মুখ্য সচিব এটা কো-অর্ডিনেট করছেন। তিনি গতকাল একটা মিটিং করেছেন। ওনারা হয়তো আজকে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব আহমেদ কায়কাউস জানিয়েছেন- রোববার ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের আবিষ্কৃত ভ্যাকসিন পাওয়া নিয়ে তারা বৈঠক করেছেন এবং এ মাসের শেষের দিকে ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, মন্ত্রিসভায় এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশের তারিখ নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। আগামী ২৮ জানুয়ারির মধ্যে ফল ঘোষণা করা হবে।

গত ৫ নভেম্বর অক্সফোর্ড উদ্ভাবিত ভ্যাকসিনের তিন কোটি ডোজ পেতে সিরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে চুক্তি করেছিল বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস। এই উদ্যোগের আওতায় প্রথম ধাপের ছয় মাসের প্রতি মাসে বাংলাদেশকে ৫০ লাখ করে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা সিরামের।

এরই মধ্যে সংবাদ প্রকাশিত হয়, ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সিরাম ইনস্টিটিউটকে আগামী কয়েক মাসের জন্য করোনা ভ্যাকসিনের রফতানি বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

তবে বাংলাদেশকে ভ্যাকসিন দিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা অস্বীকার করে ভারত সরকার। সিরাম কর্তৃপক্ষও ভ্যাকসিন রফতানি নিষেধাজ্ঞা অস্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে।

অর্থসূচক/কেএসআর