আর নয় করোনা ভ্যাকসিন-বিরোধী টুইট

0
314

এ সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের সব অঞ্চলে পৌঁছে গেছে বায়োনটেক-ফাইজার ভ্যাকসিন৷ সঙ্গে সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে ভ্যাকসিনের বিরুদ্ধে মিথ্যা এবং বিভ্রান্তিকর তথ্যপ্রচার৷ বিশ্বের অনেক দেশেই দেখা যাচ্ছে এই প্রবণতা৷ কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে লড়াইটাকে সফল করতে, মানুষের জীবন রক্ষার্থে আগেই এমন সব ভয়ঙ্কর অপপ্রচারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছিল ফেসবুক এবং ইউটিউব৷

এক ব্লগের মাধ্যমে বুধবার টুইটার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভ্যাকসিনের বিরুদ্ধে প্রচারের মাধ্যমে মানুষকে বিপদের দিকে ঠেলে দেওয়ার এই প্রবণতা রুখতে আগামী সপ্তাহ থেকে তারাও মিথ্যা তথ্যসম্বলিত সব টুইট সরাতে শুরু করবে৷

ব্লগপোস্টে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মটি নিজেদের নীতিমালায় কিছু পরিবর্তন আনার ঘোষণাও করেছে৷ জানানো হয়েছে, এ নীতিমালা কার্যকর হবে আগামী ২১ ডিসেম্বর থেকে৷

কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের শুরু ভাইরাসটির আবির্ভাবের পর থেকেই৷ কিছু লোক তখন থেকেই এমন ভাইরাসের আসলে কোনো অস্তিত্ব নেই বলে প্রচার করে আসছে৷ তথ্য-প্রমাণ ছাড়া ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হচ্ছে৷ করোনার কারণে সারা বিশ্বে ১৬ লাখ ৫০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যুর পরও চলছে এমন সব প্রচারণা৷ অনেক অপেক্ষার পর ভ্যাকসিন এসেছে৷ এ সময়েও অপপ্রচার চললে মানুষের মধ্যে ভ্যাকসিন নেওয়ার বিষয়ে সংশয় বাড়তে পারে এবং তাতে করোনায় মৃত্যুও বাড়তে পারে৷ এ আশঙ্কা দূর করতেই আগামী সপ্তাহ থেকে ভ্যাকসিন-বিরোধী সব টুইট সরানো শুরু করবে টুইটার৷ সূত্র: এপি, রয়টার্স

 

অর্থসূচক/এএইচআর