বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের পক্ষে দোলাইপাড়ে মানবশৃঙ্খল

0
184

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের পক্ষে রাজধানীর দোলাইপাড়ে মানবশৃঙ্খল কর্মসূচি পালন করেছেন স্থানীয়রা। মানবশৃঙ্খল থেকে ভাস্কর্যবিরোধী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে গণজাগরণ গড়ে তোলার আহ্বান জানানো হয়।

আজ শনিবার (০৫ ডিসেম্বর) জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও সংসদ সদস্য সৈয়দ আবুল হোসেন বাবলার সভাপতিত্বে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

সভাপতির বক্তব্যে সৈয়দ আবুল হোসেন বাবলা বলেন, একাত্তরের চেতনায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও মহান স্বাধীনতা অর্জনের সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছে দেশ, ঠিক সেই মুহূর্তে দেশের শিল্প-সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যবিরোধী গোষ্ঠী আবারও ধর্মকে অপব্যবহার করে একাত্তরের মতো বাঙালির উন্নয়ন অগ্রগতি বাধাগ্রস্ত করার অপচেষ্টা করছে। কিন্তু কোনো সাম্প্রদায়িক অপশক্তির হুঙ্কারে পথ হারাবে না ৩০ লাখ শহীদ ও দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশ।

বাবলা বলেন, বিশ্বদরবারে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের যে উজ্জ্বল ভাবমূর্তি বিরাজমান তা বিনষ্ট করার অপচেষ্টা চলছে। কিন্তু একাত্তরের পুরো বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে পাকহানাদার বাহিনীর পাশাপাশি তাদের দোসরদের পরাজিত করেছিল, ঠিক তেমনি এবারও বঙ্গবন্ধুকন্যার নেতৃত্বে ফণা-তোলা সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে প্রতিরোধ করার জন্য দেশের সকল শুভবুদ্ধিসম্পন্ন, ধর্মপ্রাণ ও প্রগতিশীল জনতা ঐক্যবদ্ধ রয়েছে।

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের ঘোষণা দেওয়ায় তুরস্ক সরকারকে অভিনন্দন জানিয়ে আবুল হোসেন বাবলা আরও বলেন, যখন আমাদের দেশে একটি গোষ্ঠী ইসলাম ধর্মের অপব্যাখ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যসহ বাংলাদেশের শিল্প, সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের পরিচয় বহন করে এমন ভাস্কর্য ভাঙার হুমকি দেয়, তখন তুরস্কের মতো একটি মুসলিম দেশে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের ঘোষণা নিঃসন্দেহে উগ্র ধর্মান্ধ গোষ্ঠীর মুখে চপেটাঘাতের সামিল। সেইদিন বেশি দূরে নয়, যেদিন, গোটা দুনিয়ার স্বাধীনতাকামী মানুষর নেতা হিসেবে পুরো বিশ্বময় বাঙালি জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য স্থাপিত হবে।

মানবশৃঙ্খল কর্মসূচিতে আরও অংশ নেন ঢাকা-৫ আসনের সংসদ সদস্য কাজী মনিরুল ইসলাম মনু। এছাড়াও সহাস্রাধিক নেতাকর্মী কর্মসূচিতে অংশ নেন।

অর্থসূচক/কেএসআর