বরিশালের প্রথম না রাজশাহীর তিনে তিন

0
126

প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে এ ক্যাটাগরির কোনো ক্রিকেটার দলে না ভিড়িয়ে টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই বেশ আলোচনায় ছিল মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও মুস্তাফিজুর রহমানকে বাদ দিয়ে তারা দলে ভিড়িয়েছিল অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে। এই অলরাউন্ডারও ইনজুরিতে পড়েন টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই। তাতে শঙ্কা তৈরি হয় বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে তাদের পারফর্ম করা নিয়ে। যদিও মাঠেই রাজশাহী প্রমাণ দিয়েছে নিজেদের সামর্থ্যের। প্রথম দুই ম্যাচেই জয় পেয়েছে তারা।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে টান টান উত্তেজনা পূর্ণ আবহে তারা ২ রানে হারায় বেক্সিমকো ঢাকাকে। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেও জেমকন খুলনার বিপক্ষে ছয় উইকেটের সহজ জয় পায় রাজশাহী। আজ নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় তামিম ইকবালের ফরচুন বরিশালের মুখোমুখি হবে দলটি।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে জেমকন খুলনার বিপক্ষে জিততে জিততেও হেরে গিয়েছিল বরিশাল। শেষ ওভারে ২২ রান দিয়ে ওই ম্যাচে খলনায়ক বনে যান মেহেদি হাসান মিরাজ। টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় ম্যাচে তাই জয়ে ফেরার লক্ষ্য থাকবে দলটি। আগের ম্যাচে রান না পাওয়া তামিম ইকবালের ব্যাটে খুব একটা রান দেখা যায়নি। এই ম্যাচে অধিনায়কের ব্যাটে রান দেখার প্রত্যাশা থাকবে বরিশালের। এছাড়াও আগের ম্যাচে সম্ভানাময় ইনিংস খেলা তৌহিদ হৃদয় ও ফিফটি হাঁকানো পারভেজ হোসেন ইমনের ব্যাটেও রানের প্রত্যাশা থাকবে তাদের।

এছাড়া আগের ম্যাচে দুর্দান্ত বল করা তাসকিন আহমেদের পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা চাইবে বরিশাল। অন্যদিকে রাজশাহী যদি আরও একটি ম্যাচে দল হিসেবে খেলতে পারে তাহলে নিশ্চিতভাবেই একটি জমজমাট লড়াই দেখা যাবে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে।

 

অর্থসূচক/এএইচআর