৪০৯ দিন পর ক্রিকেটে ফিরছেন সাকিব

0
139

আজ থেকে শুরু হয়েছে পাঁচ দলের বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ। দিনের প্রথম ম্যাচে বেক্সিমকো ঢাকা এবং মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী মুখোমুখি হলেও সকলের নজরে থাকবে দ্বিতীয় ম্যাচের দিকে। কেননা সেই ম্যাচের মধ্য দিয়েই যে ৪০৯ দিন পর ক্রিকেটে ফিরছেন সাকিব আল হাসান।

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে মাঠে নামবে সাকিবের জেমকন খুলনা। মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় মাঠে গড়াবে ম্যাচটি। গেল মাসের ২৮ তারিখ আইসিসির দেয়া এক বছরের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয় সাকিবের। নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার প্রায় এক মাস পর আজ (মঙ্গলবার) ২২ গজের লড়াইয়ে নামতে যাচ্ছেন বাঁহাতি এই অলরাউন্ডার।

একদিকে তামিমের তারুণ্য নির্ভর দল, অপরদিকে মাহমুদউল্লাহর খুলনার রয়েছে এক ঝাঁক তারকা খেলোয়াড়। কাগজ কলমের হিসাবে বরিশালের চেয়ে খুলনা ঢের এগিয়ে থাকলেও নিজেদের দলের ওপর ভরসা রাখছেন তামিম। তাঁর দাবি দলে বড় খেলোয়াড় না থাকলেও তরুণরা জ্বলে উঠে দলকে কাঙ্ক্ষিত জয়ের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দিতে সক্ষম হবেন।

এদিকে দলে সাকিবের থাকাটা নিজেদের জন্য বাড়তি সুযোগ বলে মানছেন খুলনা দলপতি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি সবসময় একটা জিনিস বিশ্বাস করি- সাকিবের যে ক্যালিবার, যে ক্যাপাবিলিটি, আমার মনে হয় না যে ওটার কোন প্রশ্ন থাকবে ওর অর্জন, ওর পারফরম্যান্সের ক্ষেত্রে। তো আমি বিশ্বাস করি ও প্রথম ম্যাচেই নিজেকে মেলে ধরতে পারবে। ওই জড়তা আমি দেখছি না, আমার মনে হয় যে ও খুব উদগ্রীব খেলার জন্য, আর মুখিয়ে আছে ভালো খেলার ব্যাপারে।

এদিকে কাগজে কলমে শক্তিশালী মানা হলেও বাস্তবিক পক্ষে বিষয়টি মানতে নারাজ খুলনা দলপতি রিয়াদ। জাতীয় টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক বলেন, ‘কাগজে-কলমে হয়তো আমাদের দলকে অনেক শক্তিশালী মনে হচ্ছে। তবে আমি সবসময়ই একটা কথা বিশ্বাস করি যে মাঠের পারফরম্যান্সটা সবসময়ই মুখ্য থাকবে। আপনি যত বড় নামই থাকেন, যত ভালো ক্রিকেটারই হন। দিনশেষে আপনাকে মাঠে এটা প্রমাণ করতে হবে। ঐ রেপটেশনটা যারা আমরা বেয়ার করি তাদের সবসময়ই প্রমাণের একটা তাগিদ থাকে। এবং এটা থাকাটাই স্বাভাবিক। তো সেক্ষেত্রে বলবো যে, অবশ্যই আমাদের প্রমাণের অনেক কিছু আছে। যেহেতু ডমেস্টিকে বেস্ট প্লেয়ারদের মধ্যে আমাদের প্রতিযোগিতাটা। তো সেটা প্রমাণের লক্ষ্যেই আমরা নামবো ইন শা আল্লাহ।’

জেমকন খুলনা: সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), ইমরুল কায়েস, হাসান মাহমুদ, আল আমিন হোসেন, এনামুল হক, শামীম হোসেন, আরিফুল হক, শফিউল ইসলাম, শুভাগত হোম, শহিদুল ইসলাম, রিশাদ হোসেন, নাজমুল ইসলাম, জাকির হাসান, সালমান হোসেন, জহুরুল ইসলাম।

ফরচুন বরিশাল: তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), তাসকিন আহমেদ, ইরফান শুক্কুর, আফিফ হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, আবু জায়েদ রাহী, তৌহিদ হৃদয়, তানভীর ইসলাম, সুমন খান, সাইফ হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, মাহিদুল অঙ্কন, পারভেজ হোসেন ইমন, কামরুল ইসলাম রাব্বি, আবু সায়েম, সোহরাওয়ার্দী শুভ।

অর্থসূচক/এএইচআর