করোনা: শনাক্ত ও মৃত্যু বেড়েছে

0
88

মহামারি করোনা ভাইরাস তাণ্ডবে বিপর্যস্ত বিশ্ব। এখনো কার্যকরী কোন ভ্যাকসিন না আসায় সংক্রমণ ও মৃত্যু প্রতিদিন বেড়েই চলছে। বেশ কিছুদিন ধরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনার ফের ঊর্ধ্বগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে, যাকে সেকেন্ড ওয়েভ বলে আখ্যায়িত করা হচ্ছে। আজ রোববার (১৯ নভেম্বর) গতকালের তুলনায় দেশে নতুন রোগী ও মৃত্যু উভয়ই বেড়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে দুই হাজার ৬০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। আগের সাত দিনে দেশে যথাক্রমে ১৮৪৭, ২২৭৫, ২১১১, ২২১২, ২১৩৯, ১৮৩৭ ও ১৫৩১ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে- দেশে নভেল করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার লাখ ৪৭ হাজার ৩৪১ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মোট ১৩ হাজার ৮৭০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর পরীক্ষাকৃত এসব নমুনার ১৪ দশমিক ৮৫ শতাংশের মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

গতকাল ১২ হাজার ৬৪৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশে মোট ২৬ লাখ ৪৯ হাজার ৭২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর মোট পরীক্ষার ১৬ দশমিক ৮৯ শতাংশ পজেটিভ।

আজ রোববার (২২ নভেম্বর) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

একনজরে দেশের করোনার চিত্র

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন: ২০৬০ জন

মোট আক্রান্তের সংখ্যা: ৪৪৭৩৪১ জন

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে: ৩৮ জনের

মোট মৃত্যু হয়েছে: ৬৮৮ জনের

                                                 ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন: ২০৭৬ জন

মোট সুস্থ হয়েছেন: ৩৬২৪২৮ জন

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৩৮ জন মারা গেছেন। গত ৩০ জুন দেশে সর্বোচ্চ ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এরপর ২৬ জুলাই ও ২৬ আগস্ট দেশে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৪ জনের মৃত্যু হয়। এর আগে গত ১৬ জুন করোনায় মারা যান ৫৩ জন।

গত সাত দিনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন যথাক্রমে ২৮, ১৭, ২১, ৩৯, ২১, ২১ ও ১৪ জন।

সর্বশেষ তথ্য অনুসারে করোনায় দেশে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ছয় হাজার ৩৮৮ জনে। মোট শনাক্তকৃত রোগীর বিপরীতে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও দুই হাজার ৭৬ জন সুস্থ হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা থেকে মোট সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৬২ হাজার ৪২৮ জন। মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮১ দশমিক ০২ শতাংশ।

অর্থসূচক/এএইচআর