ঢাবি সান্ধ্যকোর্সের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত

0
78

কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে করোনা মহামারীর মধ্যে সান্ধ্যকালীন এমবিএ কোর্সে ভর্তি পরীক্ষার আয়োজন করার পর তুমুল সমালোচনার মধ্যে তা স্থগিত করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে এবং উপাচার্য ও উপ-উপাচার্যকে না জানিয়েই বাণিজ্যিক ভিত্তিতে পরিচালিত এসব অনিয়মিত কোর্সে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তির লক্ষ্যে পরীক্ষার আয়োজন করেছিল ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ।

শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের এমবিএ (ইভিনিং) প্রোগ্রামের (৪৫তম ব্যাচ) এ ভর্তি পরীক্ষা শুরুর কথা ছিল।

তবে পরীক্ষা শুরুর নির্ধারিত সময়ের আধা ঘণ্টা আগে পরীক্ষার্থীদের মোবাইলে এসএমএস দিয়ে পরীক্ষা স্থগিত করার বিষয়টি জানানো হয়। পরীক্ষাকেন্দ্রের ফটকেও এ বিষয়ে নোটিশ দেয়া হয়েছে।

নোটিশে লেখা আছে– অনিবার্য কারণবশত এমবিএ ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তী তারিখ এসএমএসের মাধ্যমে জানানো হবে।

করোনাভাইরাসের কারণে মার্চ মাস থেকে বন্ধ রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব আবাসিক হল ও শ্রেণিকক্ষের প্রত্যক্ষ শিখন-শিক্ষণ প্রক্রিয়া। সম্প্রতি স্বাস্থ্যবিধি মেনে যেসব বিভাগের অনার্স ও মাস্টার্সের স্বল্পসংখ্যক পরীক্ষা বাকি রয়েছে, সেগুলো নেয়ার অনুমতি দেয়া হলেও বিশ্ববিদ্যালয় খোলা না হলে নেয়া হবে না প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় বর্ষের সব পরীক্ষা। কবে নাগাদ বিশ্ববিদ্যালয় খোলা হবে সে বিষয়েও নেই কোনো নিশ্চিয়তা।

এমতাবস্থায় মহামারীর মধ্যেই আজ ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের এমবিএর (ইভিনিং) ভর্তি পরীক্ষার অনুষ্ঠানে সব আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এএসএম মাকসুদ কামাল বলেন, প্রশাসনের অগোচরেই এই পরীক্ষা হচ্ছে। এই বিষয়ে আমরা জানি না। এখন করোনার জন্য সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। অন্যদিকে সান্ধ্যকোর্সের জন্য নীতিমালা নির্ধারণ না হওয়া পর্যন্ত সান্ধ্যকোর্সে কোনো পরীক্ষা না নেয়ার ব্যাপারে নির্দেশনা আছে। এ বিষয়ে উপাচার্যই বলতে পারবেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, এটি পুরনো পরীক্ষা কিনা ডিনের সঙ্গে কথা না বলে আমি বলতে পারব না।
অর্থসূচক/এমএস