জয়ের মুখে বাইডেন, ট্রাম্প পৌঁছলেন আদালতে

0
329
জো বাইডেন- ডোনাল্ড ট্রাম্প

ম্যাজিক ফিগার থেকে আর মাত্র ছয় ভোট দূরে দাঁড়িয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে বাজিমাত করার দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছেন তিনি। তবে লড়াই এত সহজ ছিল না।

বুধবার সকাল থেকে ভোট গণনা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই বোঝা গিয়েছিল, কেউ কাউকে সহজে জমি ছাড়ছেন না। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দুপুরের মধ্যেই জিতে নিয়েছিলেন ফ্লোরিডা এবং টেক্সাস। টেক্সাসের ইলেকটোরাল কলেজ ভোট ৩৮। ফ্লোরিডার ২৯। বস্তুত, টেক্সাস জেতার পরে এক সময় মনে হচ্ছিল, ট্রাম্পের দ্বিতীয়বার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়া আর কেবল সময়ের অপেক্ষা।

বাইডেনও অবশ্য সকাল থেকেই জেতার ব্যাপারে আশাবাদী ছিলেন। সুইং স্টেট দখল করেছেন। ক্যালিফোর্নিয়ার মতো গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে ক্লিন সুইপ করেছেন। ক্যালিফোর্নিয়ায় ৫৫টি ইলেকটোরাল ভোট। এই রাজ্য কার দিকে যাচ্ছে, তার উপর অনেক কিছু নির্ভর করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে। তবে শেষ বেলায় মিশিগান জয় করে বাইডেন জয় প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছেন। ট্রাম্প এখনো দাঁড়িয়ে আছেন ২১৪টি ভোটে। বাইডেন পৌঁছে গিয়েছেন ২৬৪ ভোটে। আর ছয়টি ভোট পেলেই প্রেসিডেন্টের সিংহাসনে বসতে পারবেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী।

তবে খেলা এখানেই থামছে না। বাইডেনের বিরুদ্ধে কারচুপির অভিযোগ এনেছেন ট্রাম্প। মিশিগানে ফের ভোট গণনার আর্জি জানিয়েছেন রিপাবলিকান প্রার্থী। শুধু তাই নয়, নির্বাচন প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার প্রস্তুতি সেরে ফেলেছে ট্রাম্প বাহিনী। ফলে জিতলেও সহজে প্রেসিডেন্টের চেয়ারে বসতে পারবেন না বাইডেন। আইনি লড়াইয়ে নামতে হবে। বাইডেন বাহিনী অবশ্য জানিয়েছে দিয়েছে, সমস্ত রকম আইনি লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত তারা।

ট্রাম্প নির্বাচনের আগে থেকেই পোস্টাল ব্যালট নিয়ে প্রশ্ন তুলছিলেন। বুধবারেও একাধিকবার সেই প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। নির্বাচন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, পোস্টাল ব্যালট গুণতে সময় লাগছে বলেই দ্রুত ফলাফল জানানো যাচ্ছে না। এই পোস্টাল ব্যালট নিয়েই ট্রাম্প অচলাবস্থা তৈরি করতে পারেন বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জেতার জন্য ২৭০টি ইলেকটোরাল ভোট লাগে। বিভিন্ন রাজ্যের ইলেকটোরাল কলেজ ভোট যোগ করে ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছতে হয় প্রার্থীদের। এখনো পর্যন্ত বাইডেন দখল করতে পেরেছেন মিশিগান, ক্যালিফোর্নিয়া, নিউ ইয়র্ক, নিউ জার্সি, ওয়াশিংটন, নিউ মেক্সিকো, ভার্জিনিয়া, ম্যাসাচুসেটসের মতো গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যের ইলেকটোরাল ভোট।

ট্রাম্প পেয়েছেন টেক্সাস, ফ্লোরিডা, কেনটাকি, লুসিয়ানা, মিসিসিপি, টেনিসির মতো রাজ্য। এখন দেখার ২৭০ ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছতে আর কত সময় লাগে বাইডেনের। আর ট্রাম্প নতুন কী চাল চালেন। সূত্র: রয়টার্স, এপি, ডিডব্লিউ

অর্থসূচক/এএইচআর