দাঁতের হলদেভাব ও কালচে দূর করতে তুলসি পাতা!

0
515

সুন্দর দাঁতের হাসি কমবেশি সবাই প্রত্যাশা করেন। তবে আমাদের খাদ্যাভ্যাসের কারণে অনেক সময় দাঁতের উজ্জ্বলতা নষ্ট হয়, হলদে ভাব ও কালচে পড়ে যায়। ডার্ক চকোলেট, বিট, গাজর বেশি খেলে দাঁতে ছোপ পড়তে পারে। প্রতিদিনের ডায়েটে টকজাতীয় খাবার থাকলে দাঁতের এনামেল ক্ষয়ে গিয়ে দাঁতে ছোপ ধরে যায়। অনেক সময় বেশি ওষুধ খেলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে দাঁতে কালো ছোপ পড়তে পারে। চোট লেগে দাঁতের রঙ বদলে কালচে বা নীলচে হয়ে গেলে দ্রুত চিকিৎসা করানো দরকার।

তবে ঘরোয়া পদ্ধতিতেও দূর করতে পারেন দাঁতের হলুদ ছোপ

খাবার সোডা দিয়ে সপ্তাহে তিনদিন দাঁত ঘষুন। দেখবেন একদম ঝকঝক করছে।

লেবু খাওয়ার পর সেই খোসা ফেলে না দিয়ে ভালো করে দাঁতে ঘষে নিন। এতেও অনেক ময়লা কেটে যাবে। দাঁত থাকবে একদম চকচকে। অনেক সময় পানিতে আয়রনের কারণে দাঁতে লালচে হলুদ ছোপ পড়ে। সেক্ষেত্রে একাধিকবার ব্রাশ করা আর পাতি লেবুর খোসা ঘষলেও যাবতীয় দাগ মিলিয়ে যায়।

কলার খোসার সাদা দিকটি নিয়মিত দাঁতে ঘষলে দাঁতের হলদেটে ভাব দ্রুত কেটে যায়। তবে কলার খোসা দিয়ে দাঁত ঘষার পর অবশ্যই হলকা গরম পানি দিয়ে ভালো করে কুলকুচি করে নিতে হবে।

দিনে একবার সর্ষের তেল আর লবণ মিশয়ে দাঁত মাজুন। এতে মুখের গন্ধ দূর হবে। দাঁতও থাকবে ঝকঝকে। সেই সঙ্গে অন্য রকম ব্যাকটেরিয়ার প্রকোপ থেকেও মিলবে রেহাই।

তুলসি পাতা দাঁতের স্বাস্থ্যের পক্ষে বেশ উপকারী। বেশি করে তুলসি পাতা নিয়ে সেগুলোকে রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। পাতাগুলো একেবারে শুকিয়ে গেলে সেগুলো গুঁড়ো করে যে কোনও টুথপেস্ট মিশিয়ে নিয়মিত ব্রাশ করলে দাঁতের হলুদ ভাব একেবারে চলে যায়। সেই সঙ্গে দাঁতে বিভিন্ন রোগের সম্ভাবনাও কমে।

সূত্র- এই সময়

অর্থসূচক/এমএস