ভাসানচরে রোহিঙ্গারা পার্লার খুলে ফেলেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
299
ফাইল ছবি

এক লাখ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে পাঠাতে বাংলাদেশ সিদ্ধান্তে অটল রয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন।

তিনি বলেন, শুনে তাজ্জব হবেন সেখানকার পরিবেশ এতই ভালো ৩৬০ জন রোহিঙ্গা যাদের কিছুদিন আগে সমুদ্র থেকে উদ্ধার করে ভাসানচরে রাখা হয়েছে, তাদের মধ্যে কিছু রোহিঙ্গা মহিলাদের জন্য পার্লার খুলে ফেলেছে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) দুপুরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপচারিতায় তিনি এসব কথা বলেন।

আগামী নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে কিছু রোহিঙ্গা পরিবারকে ভাসানচর আশ্রয় কেন্দ্রে পাঠানো হতে পারে বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

একে আবদুল মোমেন বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সম্পর্কে অনেক বক্তব্য শুনি কিন্তু কাজের সময় উল্টো পরিস্থিতি হয়। বিশেষ করে চীন যাদের ওপর বাংলাদেশ অনেক আশা করেছিল তারা এ বিষয়ে উদ্যোগ নেবে। সবাই বলে কিন্তু একজন রোহিঙ্গাও তো নিজ দেশে ফেরত যায় না। তিন বছর পার হয়ে গেছে, একজনও ফেরত যায়নি।

তিনি বলেন, কিছুদিন আগে জাপানের রাষ্ট্রদূত আমার সঙ্গে দেখা করে বলেছেন তারা এক পায়ে দাঁড়িয়ে আছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সাহায্য করতে। জাপানের সঙ্গে মিয়ানমারের খুব ভালো সম্পর্ক। সুতরাং আমরা মনে করেছি-জাপানের কথা মিয়ানমার শুনবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এক লাখ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে পাঠাতে বাংলাদেশ সিদ্ধান্তে অটল রয়েছে। জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য সংস্থার মহাপরিচালক আমাকে বলেছেন, ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের খাওয়াতে কুতুপালং ক্যাম্পের চেয়ে বেশি খরচের তফাৎ হবে না।

রোহিঙ্গারা যারা ভাসানচরে যাবেন তারা সেখানে মাছধরা, মুরগিপালা, গরুপালার মতো অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত হতে পারবেন বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

অর্থসূচক/কেএসআর