ধর্ষকদের জন্য আ.লীগের দরজা চিরতরে বন্ধ: কাদের

0
59

সম্প্রতি নোয়াখালীতে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এসব ঘটনায় তিনি লজ্জিত বলে জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ধর্ষণ নারী নির্যাতনের সাথে যদি আওয়ামী লীগের অথবা অঙ্গসংগঠনের কেউ জড়িত থাকে তাদেরকে ছাড় দেওয়া হবে।

আজ রোববার (২৫ অক্টোবর) নোয়াখালীর নিজ নির্বাচনী এলাকার বসুরহাট ও কবিরহাটে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দুর্গোৎসব উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়ে একথা বলেন। ওবায়দুল কাদের সংসদ ভবন এলাকায় তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত হন।

তিনি বলেন, ধর্ষণ নারী নির্যাতনকারীদের দল থেকে শুধু বের করেই দেওয়া হবে না, তাদের জন্য আওয়ামী লীগের দরজা চিরতরে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

দলীয় পরিচয় কোনো অপরাধীর আত্মরক্ষার ঢাল হতে পারে না জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, অপরাধীর পরিচয় তারা অপরাধী।

নোয়াখালীতে বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখনো যেসব কাজ বাকি রয়েছে, বর্তমান সরকারের আমলেই তা শেষ করা হবে। নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী শিক্ষিত বেকারদের কর্মসংস্থানের জন্য সবকিছুই করা হবে।

এ সময় গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে কোনো ধরনের উসকানিমূলক পোস্ট ফেসবুকে না দেওয়ার নির্দেশ দেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, নোয়াখালীর কবিরহাট অঞ্চলের মানুষ শান্তিপ্রিয়। আমাদের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি কেউ যেন বিনষ্ট করতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। দল মত নির্বিশেষে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। সম্প্রীতির কথা উল্লেখ করে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বলেন, আপনারা নিজেদের সংখ্যালঘু মনে করবেন না। এই দেশ আমাদের সকলের।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি মিলন কান্তি মজুমদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়াউল হক মীর, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খিজির হায়াত খান, সাধারণ সম্পাদক নুরনবী চৌধুরী, পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক রণজিৎ কর্মকার, শ্রী শ্রী জগন্নাথ মন্দিরের সভাপতি নির্মল চন্দ্র দে, সাধারণ সম্পাদক দীপক সূত্রধর প্রমুখ।

অর্থসূচক/কেএসআর