শুরুটা নারিন-রানার, শেষটা বরুণের

0
72

সুনীল নারিনকে নিয়ে এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) শুরু থেকেই প্রশ্ন ছিল অনেক। তাঁর টানা ব্যাটিং ব্যর্থতায় নানা সমালোচনার পর উদ্বোধনী জুটিতে বদল আনে কলকাতা নাইট রাইডার্স। অবশেষে হেসেছে এই ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডারের ব্যাট।

দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে চলমান আইপিএলের ৪২তম ম্যাচে ছয় নম্বরে নেমে ঝড়ো এক হাফ সেঞ্চুরি হাঁকান নারিন। ৬টি চার এবং ৪টি ছক্কায় ৩২ বলে ৬৪ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেন তিনি।

নারিনের সঙ্গে ব্যাট হাতে দুর্দান্ত পারফর্ম করেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান নিতিশ রানাও। একটি ছক্কা এবং ১৩টি চারের সাহায্যে ৫৩ বলে ৮১ রান করেন তিনি। নারিন এবং রানার অনবদ্য ব্যাটিংয়ের দিনে দিল্লির বিপক্ষে ৫৯ রানের জয় পায় ইয়ন মরগানের নেতৃত্বাধীন কলকাতা। ফলে পয়েন্ট টেবিলের চার নম্বরে উঠে এসেছে তারা।

এদিন কলকাতার দেয়া ১৯৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে লেগ স্পিনার বরুণ চক্রবর্তীর ঘূর্ণি বোলিংয়ে ৯ উইকেটে ১৩৫ রান করতে সক্ষম হয় দিল্লি। ৪ ওভারে ২০ রান খরচায় ৫ উইকেট নিয়ে দিল্লির ব্যাটিং লাইন আপে ধ্বস নামান ২৯ বছর বয়সী বরুণ। অসামান্য বোলিং করে নিজের জাত চিনিয়েছেন অজি পেসার কামিন্সও। ৪ ওভারে ১৭ রানে ৩ উইকেট নেন তিনি।

বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় অবশ্য শুরু থেকেই ব্যাকফুটে চলে যায় দিল্লি ক্যাপিটালস। ইনিংসের একেবারে প্রথম বলেই সাজঘরে ফেরেন ওপেনার আজিঙ্কা রাহানে। কামিন্সের বলে এলবিডব্লিউয়ের শিকার হন তিনি। রাহানের আউট হওয়ার পর সেই ধাক্কা আর ভালোভাবে সামলাতে পারেনি শ্রেয়াস আইয়ারের দল। মাঝে অধিনায়ক আইয়ার ৩৮ বলে ৪৭ রান করে দলকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করলেও খুব একটা সফল হননি। আইয়ার ছাড়াও দিল্লির পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ঋশভ পান্ত।

এদিন আবু ধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে ৪২ রানে তিন উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়েছিল কলকাতাও। তবে এক প্রান্তে উইকেট গেলেও টিকে ছিলেন নিতিশ রানা। পরবর্তীতে তাঁর সঙ্গে যোগ দিয়ে চার-ছক্কার ফুলঝুঁড়ি ফোটান নারিন। শুরুতে একটু ধরে খেললেও সময় গড়াতেই আক্রমনাত্মক হয়ে উঠেন রানাও। নারিন-রানার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৯৪ রানের বিশাল পুঁজি পায় কলকাতা। দিল্লির পক্ষে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন মার্কাস স্টয়নিস, কাগিসো রাবাদা এবং অ্যানরিক নরকিয়া।

 

অর্থসূচক/এএইচআর