হলুদ খাওয়ার উপকারিতা

0
367

হলুদের কথা এলে আমরা সাধারণত গায়ে হলুদ বা রান্নার হলুদের কথা বুঝি। হলুদের যে অনেক রকমের ব্যবহার আছে তা আমরা জানি কয়জনে। হিন্দু শাস্ত্রে হলুদকে বলা হয় শুভ আর আয়ুর্বেদিক চিকিৎসকের কাছে হলুদ হলো অ্যান্টিসেপটিক। রান্না যেমন আমাদের হলুদ ছাড়া চলে না তেমনি ত্বক উজ্জ্বল করতে অনেকে কাঁচা হলুদ গায়ে মাখেন। খালি পেটে কাঁচা হলুদ মধু দিয়ে চিবিয়ে খেলে শরীর ভালো থাকে। এমনকি হার্টের অসুখ কমাতে হলুদের বিকল্প নেই। হলুদের মধ্যে বিস্ময়কর আরোগ্যশক্তি বিদ্যমান।

ত্বকের দাগ

ত্বকের যেকোনো দাগ দূর করতে কাঁচা হলুদের উপকারিতা গুরুত্বপূর্ণ। পায়ের দুই আঙুলের ফাঁকে ছত্রাক দ্বারা সংক্রমিত হলে হলুদ মাখলে কিছুটা হলেও উপকার আসবে। তবে যাদের অ্যালার্জিজনতি সমস্যা আছে তাদের ক্ষেত্রে কাঁচা হলুদ মাখা মোটেও ভালো হবে না। এক চামচ মধু, এক চামচ দুধ, আর এক চিমটি হলুদগুঁড়ো মিশিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করতে পারেন। সপ্তাহে তিন-চার বার এই প্যাক ব্যবহার করতে পারেন।

ওজন কমায়

হলুদ নিয়মিত খেলে ওজন কমায় আর চিনি জাতীয় খাবার চর্বি আকারে শরীরে বাসা বাঁধতে পারে না। হজমের সমস্যাও দূর করে হলুদ।

রক্তের প্রবাহ বাড়িয়ে তোলে

রক্তের প্রবাহ বাড়িয়ে তুলতে হলুদ সেবনের পরামর্শ দেন আয়ুর্বেদিক চিকিৎসকরা। কারণ হলুদ ব্রংকাইটিস বা কাশি, ঠান্ডা ও কফের সমস্যা দূর করে।

পোড়া দাগ হালকা করে

পোড়া দাগ হাল্কা করতে লেবুর রস মিশিয়ে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখতে হবে। নিয়মিত কয়েকদিন পোড়া দাগে হলুদের গুঁড়া লাগালে দাগ থেকে অনেকাংশেই মুক্তি পাওয়া যাবে।

হলুদের রস

কাঁচা হলুদের রস ৫ ফোঁটা থেকে শুরু করে বয়স অনুপাতে এক চা চামচ পর্যন্ত চিনি বা মধু মিশিয়ে খেলে লিভারের সমস্যায় উপকার পাওয়া যায়। কাঁচা হলুদের রস সামান্য নুন মিশিয়ে সকালবেলা খালি পেটে খেলে কৃমি রোগ সারে। সূত্র: আনন্দবাজার

অর্থসূচক/এমএস