মরিসে সমাধান খুঁজে পেয়েছে আরসিবি

0
69

আইপিএলের প্রতি আসরেই বোলিং বিভাগের কারণে দুশ্চিন্তায় পড়তে হয় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে। চলতি আসরের শুরুতেও ছিল একই চিত্র। কিন্তু টুর্নামেন্ট লম্বা হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বড় এই সমস্যার সমাধান খুঁজে বের করেছে বিরাট কোহলির দল। এই সমাধানের নাম ক্রিস মরিস।

চলতি আসরে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে আছে আরসিবি। ১০ ম্যাচের মধ্যে ৭টিতেই জয় পেয়েছে সায়মন ক্যাটিসের শিষ্যরা। টুর্নামেন্টের শুরুর ৫ ম্যাচে দুইটিতে হারলেও, ষষ্ঠ ম্যাচে একাদশে অন্তর্ভুক্ত করা হয় ক্রিস মরিসকে। এই মরিসকে পেয়েই যেন আরও ধারালো হয়ে উঠেছেন বিরাট কোহলিরা। শেষ ৫ ম্যাচের ৪টিতেই জিতেছেন তারা, এমনকি বুধবার কলকাতা নাইট রাইডার্সকে নাকানি চুবানি খাইয়েছে দলটি। মাত্র ৮৪ রানে আইপিএলের দুই বারের চ্যাম্পিয়নদের থামিয়ে দিয়ে, ৮ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে বেঙ্গালুরু।

এই ম্যাচে আরসিবির জয়ের অন্যতম নায়ক ছিলেন মোহাম্মদ সিরাজ। ৪ ওভারে ২ মেইডেন দিয়ে ৮ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। মূলত মরগানবাহিনীর টপ অর্ডারকে লণ্ডভণ্ড করে দিয়েছিলেন এই পেসার। ম্যাচ সেরা হওয়ার পর সিরাজ বলেন, ‘আরসিবি শিবিরে এখন অনেক ইতিবাচক শক্তি আছে। আমরা একে অপরের সঙ্গে নিয়মিত কথা বলছি, আলোচনা করছি, চেষ্টা করছে একে ওপরকে সাহায্য করার। যেন দল আরও চাঙ্গা হয়। মরিস আসার পর পুরো দল আরও শক্তিশালী হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে বোলিং লাইন আপ। আমরা আজ খুব ভালো বোলিং করেছি। দলের জন্য জয়টা গুরুত্বপূর্ণ ছিল, আশা করছি এই ধারাবাহিকতাটা ধরে রাখব।

সাইড স্ট্রেইনে চোট থাকায় আইপিএলের শুরুর দিকের ম্যাচগুলোতে খেলতে পারেননি মরিস। সুযোগ পেয়ে এখন পর্যন্ত ৫ ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়েছেন এই পেস বোলিং অলরাউন্ডার। সেই সঙ্গে ইসুরু উদানাতেও ভালো ভারসাম্য পেয়েছে আরসিবি।

অর্থসূচক/এএইচআর