হাবিপ্রবিতে প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত

0
74
হাবিপ্রবি
প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে হাবিপ্রবিতে ছাত্রলীগের মিছিল

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার সময় বিদেশে থাকায় প্রাণে বেচে যান বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। কিন্তু এর পর তিনি দীর্ঘদিন দেশে ফিরতে পারেননি। মাতৃভূমি ছেড়ে লন্ডন ও ভারতে থাকতে হয় তাকে।

অবশেষে ১৯৮১ সালে আজকের এই দিনে মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার স্লোগান নিয়ে দেশে ফিরে আসেন শেখ হাসিনা। শেখ হাসিনা আগমন উপলক্ষে সারা দেশ থেকে লাখ লাখ অধিকার বঞ্চিত মুক্তিকামী জনতা ঢাকায় ছুটে গিয়েছিল। জয় বাংলা ধ্বনীতে প্রকম্পিত হয়েছিল সেদিনে ঢাকার আকাশ বাতাস। মানুষ সেদিন বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের শপথ নিয়েছিল। লাখ লাখ জনতাকে উদ্দেশ্য করে সেদিন শেখ হাসিনা বলেছিলেন সব হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে আমি আপনাদের মাঝে এসেছি, বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে তার আদর্শ বাস্তবায়নের মধ্যে দিয়ে জাতির জনকের হত্যার বিচার গ্রহণে আমি প্রয়োজনে নিজের জীবনকে উৎসর্গ করতে চাই।

গতকাল শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৩তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় দিনাজপুর শাখা আয়োজিত র‌্যালি শেষে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার সভাপতি ইফতেখারুল ইসলাম রিয়েল একথা বলেন।

হাবিপ্রবি শাখার ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক অরুন কান্তি রায় সিটন এর পরিচালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার সহ-সভাপতি শিয়াবুল আউয়াল, যুগ্ম সম্পাদক আশাদুজ্জামান জেমি, প্রত্যুষ কুমার, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক আহসান হাবিব, ছাত্রলীগ ডরমেটরি-২ হল শাখার সভাপতি এসএম জাহিদ হাসান, সাধারণ সম্পাদক সিফাত সাহা, ছাত্রলীগ শহীদ নুর হোসেন হল শাখার সভাপতি রুহুল কুদ্দুস জোহা, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হোসেন অভি, ছাত্রলীগ মাহফুজুর রহমান হল শাখার সভাপতি পলাশ চন্দ্র রায়, সাধারণ সম্পাদক রঞ্জন সরকার, ছাত্রলীগ বঙ্গমাতা ফাজিলাতুন্নেসা মুজিব হল শাখার সাধারণ সম্পাদক মারুফা শারমিন ত্রিসা, ছাত্রলীগ এক্সটেনশন হল শাখার সভাপতি শ্বাসতী চক্রবর্তী মুন, সাধারণ সম্পাদক জিনাত শিশির, ছাত্রলীগ প্রীতিলতা হল শাখার সভাপতি মিশরাত মাসুফা পারভেজ প্রমুখ।

আলোচনা সভার পূর্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৩তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় ডিবক্স প্রাঙ্গন থেকে র‌্যালি বের হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

সাকি/