নারী সেজে প্রতারণা, ২০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

0
62

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নারী সেজে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে মাসুক মিয়া ওরফে মাসুদ (২৮) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) রাতে নরসিংদীর মনোহরদী থানা এলাকায় মনোহরদী পৌরসভা বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার মাসুদ এ পর্যন্ত বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ১৫-২০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

আজ বুধবার (২১ অক্টোবর) র‌্যাব-৪ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. সাজেদুল ইসলাম সজল গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

র‌্যাব জানায়, র‌্যাব-৪ এর কাছে বিভিন্ন সময় অভিযোগ আসে মেয়েদের নামে ফেক ফেসবুক আইডি খুলে সুন্দরী মেয়ের ছবি দিয়ে বিভিন্ন জনকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়ে নানাভাবে প্রলুব্ধ করে বিকাশের মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। ভুয়া আইডি ও প্রোফাইল পিকচার দিয়ে ফেসবুক ব্যবহার করে সেখানে সুন্দরী নারীর ছবি, বন্ধু হওয়ার আমন্ত্রণ করা হয়। একবার এই আমন্ত্রণে সাড়া দিলেই হয় মোবাইল নম্বর লেনদেন।

দীর্ঘ সময় ধরে হয় নারী কণ্ঠে বন্ধুত্বপূর্ণ আলাপ। প্রেম ও ভালোবাসার একপর্যায়ে বন্ধুর সঙ্গে দেখা করার জন্য তিনি ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন। পথিমধ্যে দুর্ঘটনা, আবার কখনও হাসপাতালে ভর্তি, তাৎক্ষণিক মিটমাট করার জন্য প্রয়োজন ২৫/৩০ হাজার টাকা। কিন্তু সঙ্গে এত টাকা নাই, তাই বন্ধুর শরণাপন্ন হতে হয়। বন্ধুও সরল বিশ্বাসে ভালোবাসার টানে বিকাশের মাধ্যমে কাঙ্ক্ষিত টাকা পাঠিয়ে দেন। তারপর থেকে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

র‌্যাব আরও জানায়, এই প্রতারক কখনও ভিডিও কলে কথা বলে না, তাতে ধরা পড়ে যাওয়ার ভয় থাকে। কণ্ঠ পরিবর্তন করে মেয়ের কণ্ঠে কথা বলে। কখনও প্রবাসী সুরেলা নারী, কখনও পুলিশ অফিসার, কখনও মেয়ের মা, কখনও মেয়ের বোন সেজে নিপুণ অভিনয় করে বিকাশের মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়।

গ্রেফতার আসামিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে র‌্যাব জানায়, অভিযুক্ত ডিজিটাল প্রতারক মাসুক মিয়া Soniya Akter keya নামে ফেক ফেসবুক আইডি খুলে নিজেকে লন্ডন প্রবাসী পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন ছেলেকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়ে বন্ধুত্ব স্থাপন করে। আবার কখনও মেসেঞ্জারে, কখনও মোবাইলে সরাসরি কণ্ঠ পরিবর্তন করে মেয়ে কণ্ঠে কথা বলে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করে প্রতারণা করে।

অর্থসূচক/কেএসআর