মার্শ আউট, হোল্ডার ইন

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) শুরুতেই হোঁচট খেল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। গোড়ালির চোটে পুরো মৌসুম থেকে ছিটকে গিয়েছেন মিচেল মার্শ। অস্ট্রেলিয়ার এই অলরাউন্ডারের বদলি হিসেবে স্কোয়াডে যোগ করা হয়েছে জেসন হোল্ডারকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই অধিনায়কের আগেও আইপিএলে খেলার অভিজ্ঞতা আছে। চেন্নাই সুপার কিংস, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেছেন এই অলরাউন্ডার।

আইপিএলে সর্বশেষ ২০১৬ সালে নাইট রাইডার্সদের জার্সিতে খেলেছেন হোল্ডার। এবার ৪ মৌসুম পর আবারও আইপিএলে ফিরছেন এই ক্যারিবিয়ান। এর আগে ২০১৪ সালে সানরাইজার্সের হয়ে মাত্র এক ম্যাচে মাঠে নামার সুযোগ হয়েছিলো তার।

২১ সেপ্টেম্বর রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে আসরের প্রথম ম্যাচে মাঠে নেমেছিল হায়দরাবাদ। ২০১৬ মৌসুমের পর আবারও আইপিএলে সুযোগ পেয়ে প্রথম ম্যাচেই হায়দরাবাদের একাদশে ছিলেন মিচেল মার্শ। কিন্তু ম্যাচের শুরুতেই বোলিংয়ের সময় ডান পায়ের গোড়ালিতে চোট পান মার্শ। ওভারে মাত্র দুই বল করেই মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। চোটের কারণে মিডল অর্ডারে ব্যাটিংও করতে নামেননি এই অজি। দলের বিপর্জয়ে ১০ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে আউট হয়েছেন ০ রানেই। এরপর আজ (২৩ সেপ্টেম্বর) মার্শের ছিটকে যাওয়ার খবরটি নিশ্চিত করে হায়দরাবাদ।

এর আগেও বেশ কয়েকবার ইনজুরির কবলে পড়েছেন মার্শ। ২০১৮ সালে তাঁর বাম পায়ের গোড়ালিতে অপারেশন করাতে হয়েছিল। গত বছর তাসমানিয়ার বিপক্ষে শেফিল্ড শিল্ডের একটি ম্যাচে আউট হয়ে রাগে ওয়ালে ঘুষি দিয়ে হাত ভাঙেন তিনি।

এর আগেও আইপিএল থেকে চোটের কারণে ছিটকে গিয়েছিলেন মার্শ। ২০১৬ সালে রাইজিং পুনের সুপার জায়েন্টসের হয়ে ৩ ম্যাচ খেলার পুরই পুরো আসর থেকে ছিটকে যান ২৮ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

 

অর্থসূচক/এএইচআর