এসপির পর এবার কক্সবাজার পুলিশের ৭ কর্মকর্তা বদলি

কক্সবাজার জেলার সাত শীর্ষ পুলিশ কর্মকর্তাকে একযোগে বদলি করা হয়েছে। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

এর আগে মেজর (অব.) সিনহা হত্যার পর নানা সমালোচনার মধ্যে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনকে সম্প্রতি রাজশাহীতে বদলি করা হয়।

বদলীর আদেশ পাওয়া কর্মকর্তাদের কক্সবাজার অবস্থানের মেয়াদ দুই থেকে তিন বছর এবং ক্ষেত্র বিশেষে আরও বেশি হওয়ায় এটাকে নিয়মিত বদলি হিসেবে উল্লেখ করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

বদলিকৃত কর্মকর্তাদের মাঝে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন ডিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো.আদিবুল ইসলাম মুন্সিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, কক্সবাজার সদরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রেজওয়ান আহমেদ গাজীপুর জিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, মহেশখালী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার রতন কুমার দাশ গুপ্ত চট্টগ্রাম ৯ম এপিবিএনের সহকারী পুলিশ সুপার, ট্রাফিক পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার বাবুল চন্দ্র বণিক চট্টগ্রাম আরআরএফের সহকারী পুলিশ সুপার, চকরিয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার কাজী মো. মতিউল ইসলাম নোয়াখালীর সহকারী পুলিশ সুপার ও ডিএসবির সহকারী পুলিশ সুপার মো. শহিদুল ইসলামকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) সহকারী পুলিশ কমিশনার হিসবে বদলি করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের পুলিশ সুপার (এসপি) এবিএম মাসুদ হোসেনকে বদলি করে রাজশাহীর পুলিশ সুপার করা হয়। আর ঝিনাইদহের এসপি মো. হাসানুজ্জামানকে কক্সবাজার জেলা পুলিশের দায়িত্ব দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই টেকনাফের মেরিন ড্রাইভে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান পুলিশের গুলিতে নিহতের ঘটনায় সমালোচিত হন পুলিশ সুপার। মেজর সিনহা নিহতের পর এসপির সঙ্গে জেলা পুলিশের একাধিক কর্মকর্তার কথোপকথন ফাঁস হয়। যা গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রকাশিত হয়। গত ১০ সেপ্টেম্বর নিহত সিনহার বোন এসপি মাসুদকে আসামি করতে আদালতে একটি আবেদন করেন। তবে আদালত সেই আবেদন খারিজ করে দেন।

অর্থসূচক/কেএসআর