খালেদা জিয়ার ওপর সরকারের বিধি-নিষেধ অমানবিক: নজরুল ইসলাম

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
64

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, ‘সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার ব্যাপারে খালেদা জিয়ার ওপর সরকার যে বিধি-নিষেধ দিয়ে রেখেছে সেটা অমানবিক। এ বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করার দাবি জানাচ্ছি।’

বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয়তাবাদী নারী দলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শের-এ বাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে তিনি একথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘একজন মানুষ যার বয়স প্রায় ৭৬ বছর, সবাই জানে তিনি অনেক অসুস্থ। তাকে বিদেশে চিকিৎসা নিতে হয়েছে। তার উন্নত চিকিৎসা দরকার। বাংলাদেশে তিনি দীর্ঘদিন হাসপাতালে ছিলেন, কিন্তু সুস্থ হতে পারেননি। তার সুচিকিৎসার জন্য প্রয়োজনে তাকে বাইরে যেতে হবে। তিনি যাবেন কি যাবেন না, যাওয়ার প্রয়োজন হবে কি হবে না, সেটা ভিন্ন কথা। কিন্তু সরকারি আদেশে তার চিকিৎসার জন্য বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ করাটা অমানবিক বলে আমরা মনে করি। ’

তিনি বলেন, ‘২৫ মার্চ মধ্যরাতে উই রিভল্ট বলে জিয়াউর রহমান যুদ্ধ শুরু করেছিলেন। তার নাবালক শিশুপুত্রসহ স্ত্রীকে অসহায় অবস্থায় রেখে তিনি সৈন্যদের সঙ্গে নিয়ে লড়াইয়ে অবতীর্ণ হয়েছিলেন। আমাদের যাদের সেসময় লড়াই করার বয়স ছিল, আমরাও লড়াই করেছিলাম। আমাদের স্বপ্ন ছিল একটি স্বাধীন শুধু নয়, একটি গণতান্ত্রিক, মানবিক, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়া। কিন্তু দুর্ভাগ্য আমাদের, স্বাধীনতার এত বছর পরেও আমরা এ দেশে একদলীয় শাসন দেখেছি। সামরিক স্বৈরশাসন দেখেছি। বেসামরিক স্বৈরশাসনও দেখেছি। ফলে আমাদের গণতন্ত্র বলতে যেটা বোঝায়, যথাযথভাবে সেটা বাস্তবায়ন হয়নি। ’

তিনি বলেন, ‘যে সরকার জনগণের কাছে দায়বদ্ধ থাকবে, সেরকম সরকার কায়েম হতে পারে একটি ‍সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে। কিন্তু আজ বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন থেকে শুরু করে সব প্রতিষ্ঠানকে দলীয়করণের মাধ্যমে দুর্বল করে ফেলা হয়েছে। এগুলো শক্তিশালী করা দরকার। মানবিক এক বাংলাদেশ গড়তে হবে, যে দেশে মানুষ তার মর্যাদা পাবে। গুম-খুন, অত্যাচার, মিথ্যা মামলার অপব্যবহার বন্ধ হবে। গরিব মানুষরা বেঁচে থাকার অবলম্বন পাবে। দেশ সমৃদ্ধ হবে। কিছু ব্যক্তি বা গোষ্ঠী না। সারা দেশের জনগণ সমৃদ্ধ হবে। ’

অর্থসূচক/এমএস