কমনওয়েলথের মাধ্যমে নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে অর্থায়নের আহ্বান

কমনওয়েলথ এন্টারপ্রাইজ এবং ইনভেস্টমেন্ট কাউন্সিল সম্প্রতি ‘কমনওয়েলথ ক্লিন এনার্জি কনভারসেশন’ শীর্ষক একটি ওয়েবিনার করেছে। এতে চলমান এই প্রতিযোগিতামূলক বাজারে নবায়নযোগ্য জ্বালানি উত্সগুলোর জন্য সুষম ও সাশ্রয়ী ট্রানজিশন তৈরির বিষয়ে আলোচনা হয়।

আলোচনায় এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, কমনওয়েলথের মতো বিশ্বব্যাপী প্ল্যাটফর্ম এবং সংস্থার মাধ্যমে এই বিষয়গুলি মোকাবিলা করা যেতে পারে। এ প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে স্থানীয় নবায়নযোগ্য জ্বালানি উদ্যোগগুলোতে অর্থায়ন করা যেতে পারে।

আজ মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানে হয়।

যেখানে এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, জ্বালানি খাত এবং আগামী দিনের বিদ্যমান বিষয়গুলোকে’ ৬০-এর দশকের প্রথম দিকেই আলোচনায় আনা হয়েছিল। তবে এটি বাস্তবায়েনের জন্য বহুপক্ষীয় উদ্যোগে অর্থায়ন করা হলে আমরা আরও সম্পৃক্ত হতে পারি। নবায়নযোগ্য জ্বালানির প্রকার এবং ব্যবসায়ের মডেল খুব একটা পরিচিত নয় এবং স্থানীয় সরকার ও ব্যাংকগুলোও পর্যাপ্ত নয়।

তিনি আরো বলেন, তবে কমনওয়েলথের মতো বিশ্বব্যাপী প্ল্যাটফর্ম এবং সংস্থার মাধ্যমে এই বিষয়গুলি মোকাবিলা করা যেতে পারে।
জার্মানি এবং বিএমডব্লিউ’র বৈদ্যুতিক যানবাহনের জন্য অবকাঠামো গড়ার বিষয়টি তুলে ধরে এফবিসিসিআই সভাপতি আরও বলেন, সবুজ ও নবায়নযোগ্য জ্বালানির ক্ষেত্রে একটি সহজ রূপান্তর প্রক্রিয়ার জন্য দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সরকারি বা বেসরকারি প্ল্যাটফর্মগুলোতে মালামাল ও দক্ষতা বা জ্ঞান প্রেরণ কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

এফবিসিসিআইর সভাপতি ছাড়াও ওয়েবিনারে আরইইইপি’র মহাপরিচালক ম্যাগডালেনা কাউনেভা, ড. টনি জুনিপার, সিবিই, বোর্ড সদস্য,কুল আর্থ এবং যুক্তরাজ্যের জলবায়ু বিনিয়োগ এলএলপি ম্যাককুয়েরি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রিচার্ড আবেল সহ অন্যান্য বড় জ্বালানি বিশেষজ্ঞরা অংশ নেন।

অর্থসূচক/এমআরএম/কেএসআর