ভর্তি নেয়নি হাসপাতাল, বিনা চিকিৎসায় মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু

প্রতিনিধি

0
130

শ্বাসকষ্ট নিয়ে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি হতে গিয়েছিলেন সদর উপজেলার আগদিঘা কাটাখালী গ্রামের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্বাস আলী গাজী (৮০)। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে ভর্তি করেনি। এরপর বিভিন্ন ক্লিনিক ঘুরতে ঘুরতে বিকেলে তার মৃত্যু হয়।

আজ রোববার (১৯ জুলাই) বিকেলে তার মৃত্যু হয়। ঘটনার পর সাধারণ মানুষ বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে।

মুক্তিযোদ্ধা আব্বাস আলী গাজীর ছেলে আজিম উদ্দিন গাজী অভিযোগ করে বলেন, গত দুই বছর ধরে তার বাবা আব্বাস আলী গাজী শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। গতরাতে শ্বাসকষ্ট বেশি হলে রোববার সকালে তাকে প্রথমে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা আমার বাবাকে ভর্তি নেননি। বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিচয় দিয়েও হাসপাতালের ডাক্তাররা তাকে ভর্তি নেননি। পরে বাবাকে নিয়ে বিভিন্ন ক্লিনিকে ঘুরে শেষ পর্যন্ত সততা ক্লিনিকে নিয়ে এলে তারা বাবার বেশ কিছু টেস্ট করান। টেস্ট করা পর তারা বাবাকে আবারও সদর হাসপাতালে পাঠান। সেখানে নিয়ে গেলেও চিকিৎসকরা বাবাকে ভর্তি নেননি। আবারও বাবাকে সততা ক্লিনিকে আনা হয়। সেখানে চিকিৎসক দেখে কিছু ওষুধ লিখে দেন এবং বাবার আরেকটি পরীক্ষা করা হয়। এরপর বাবাকে অক্সিজেন ও নেবুলাইজার দেওয়া অবস্থায় মারা যান।

সিভিল সার্জন ডা. কাজী মিজানুর রহমান জানান, ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। চিকিৎসক বা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের গাফিলতি ছিলো কি না, সে বিষয়ে তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছি। কোনো অবহেলা থাকলে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল বলেন, একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা যদি সত্যিই সরকারি চিকিৎসকদের অবহেলায় মারা যান, তাবে এর দায় তারা এড়াতে পারবেন না। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অর্থসূচক/কেএসআর