ফজলে কবিরকে রাখতে আইন সংশোধনের সিদ্ধান্ত মন্ত্রীসভার

0
152
???? ?????? ?????? ???? ??: ?????? RTVONLINE

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরের মেয়াদ বাড়াতে আইন সংশোধনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। শিথিল করা হয়েছে গভর্নরের বয়সসীমার শর্ত। তুলে দেওয়া হয়েছে বয়স সীমার শর্ত।


অর্থসূচকে প্রকাশিত পুঁজিবাজার ও অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ স খবর পাওয়া যাচ্ছে আমাদের ফেসবুক গ্রুপ

Sharebazaar-News & Analysis এ। এতে যোগ দিয়ে সহজেই থাকতে পারেন আপডেট।


আজ সোমবার (৮ জুন) অনুষ্ঠিত মন্ত্রীসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বিদ্যমান আইন (বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার) অনুযায়ী বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের সর্বোচ্চ বয়স হতে পারবে ৬৫ বছর। এর পর কেউ আর গভর্নর পদে থাকতে পারবে না বা এর চেয়ে বেশি বয়সী কাউকে এ পদে নিয়োগও দেওয়া যাবে না।

কিন্তু ৬৫ বছরের কাছাকাছি বয়স হওয়া সত্ত্বেও গভর্নর ফজলে কবিরের মেয়াদ বাড়াতে আগ্রহী সরকার। কিন্তু আইন সংশোধন না করলে বয়সের বাধার কারণে সেটি সম্ভব নয়। তাই আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রীসভার বৈঠকে গবাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার সংশোধন করে গভর্নরের গ্রহণযোগ্য বয়সসীমা ৬৫ বছর থেকে ৬৭ বছর করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বক্তব্য রাখছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির- ছবি মহুবার রহমান

বাংলাদেশের ইতিহাসে এই প্রথম ঘটছে এই ঘটনা।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত অর্থনীতিকে টেনে তোলার মূল দায়িত্ব পড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ওপর। নীতি প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের মাধ্যমে নিজ দায়িত্ব পালনের চেষ্টাও করছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ অবস্থায় গভর্নরের মতো নীতিনির্ধারণী ও গুরুত্বপূর্ণ পদে পরিবর্তন আনার ঝুঁকি নিতে চাইছে না সরকার। আর এ কারণেই ফজলে কবিরকে আরও ২ বছরের জন্য নিয়োগ দিতে আইন সংশোধনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আজ মন্ত্রীসভার বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ‘দ্য বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার, ১৯৭২ (প্রেসিডেন্টস অর্ডার নম্বর ১২৭, ১৯৭২) এর আর্টিকেল ১০ এর ক্লোজ ৫ এর বিধান অনুযায়ী গভর্নরের কার্যকাল বা মেয়াদ চার বছর এবং তাকে পুনঃনিয়োগ করা যাবে। তবে উক্ত ক্লোজ (৫) এর শর্তাংশে (প্রভিশন) উল্লেখ রয়েছে যে, ৬৫ বছর বয়স পূর্তির পর কোনো ব্যক্তি গভর্নর পদে আসীন থাকতে পারবেন না।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর হিসেবে আর্থিক খাতে অভিজ্ঞতাসম্পন্ন ব্যক্তিকে নিয়োগ দেওয়া হয়। কিন্তু সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৬৫ বছর নির্ধারিত থাকায় আর্থিকখাতে দক্ষতা ও অভিজ্ঞতাসম্পন্ন ব্যক্তিকে ৬৫ বছরের পর গর্ভনর হিসেবে নিয়োগ দেওয়া সম্ভব হয় না। এমনকি বাংলাদেশ ব্যাংকে গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালনকারী অভিজ্ঞ ব্যক্তিকেও ৬৫ বছরের পর পুনঃনিয়োগ দেওয়া সম্ভব হয় না। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত ও শ্রীলংকায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর পদে সর্বোচ্চ বয়সসীমার উল্লেখ নেই।

‘এমতাবস্থায়, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের সর্বোচ্চ বয়সসীমা সংক্রান্ত ‘দ্য বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার, ১৯৭২ (প্রেসিডেন্টস অর্ডার নম্বর ১২৭, ১৯৭২) এর আর্টিকেল ১০ এর ক্লোজ ৫ এর শর্তাংশ বা প্রভিশন বিলুপ্তির উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।’