প্রায় ১৪ লাখ কোটি টাকার বিকল্প বাজেট প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
96

১৩ লাখ ৯৬ হাজার ৬০০ কোটি টাকার সম্প্রসারণমূলক বিকল্প বাজেট ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি। যা অর্থমন্ত্রণালয়ের বর্তমান বাজেটের ৫ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকা বেশি। শতাংশের হিসেবে যা ২.৪৭ শতাংশ বেশি। বিশাল আকারের এ বাজেটে ঘাটতি ধরা হয়েছে এক লাখ ৩৫ হাজার কোটি টাকা।

সোমবার (৮ জুন) এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ বিকল্প বাজেট প্রস্তাব তুলে ধরেন বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আবুল বারকাত।

করোনার (কোভিড-১৯) মহাবিপর্যয় থেকে মুক্তি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির বিকল্প বাজেট প্রস্তাবনা’ শিরোনামে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সমিতির সহ-সভাপতি জেড এম সালেহর সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে সূচনা বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক জামালউদ্দিন আহমেদ।

বাজেট ঘোষনায় আবুল বারকাত বলেন, আমার মতে, অর্থনীতি সমিতির বিকল্প বাজেট প্রস্তাবনায় করোনার মহাবিপর্যয় থেকে মুক্তি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ বিনির্মাণের বিষয়টি প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

সূচনা বক্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক ড. জামালউদ্দিন আহমেদ। সঞ্চালক হিসেবে ছিলেন সহ-সভাপতি এ জেড এম সালেহ। ভিডিও কনফারেন্সটি অর্থনীতি সমিতির নিজস্ব ফেসবুক পেজ (Bangladesh Economic Association-BEA) থেকে সরাসরি প্রচার করা হয়।

বাজেটে আয়ের খাত হিসেবে সভাপতি বলেন, রাজস্ব খাত থেকে ১২ লাখ ৬১ হাজার ৬০০ কোটি টাকা আহরণ। যা মূল বাজেটের প্রায় ৯১ শতাংশ। বাকি এক কোটি ৩৫ লাখ টাকার যে ঘাটতি থাকবে তা বাস্তবায়নে বন্ড বাজার থেকে ৭০ হাজার টাকা, সঞ্চয়পত্র থেকে ৪০ হাজার টাকা, পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশীপ এর মাধ্যমে ২৫ হাজার কোটি টাকা সংগ্রহ করাসহ মোট ২১ টি নতুন খাতের প্রস্তাবণা দেয়া হয়েছে।

বাজেটের ঘাটতি মেটাতে বৈদেশিক ঋণ এবং ব্যাংক থেকে কোন ধরনের ঋণ না নেয়ার জন্য বলেন তিনি

অর্থসূচক/এমআরএম/এমএস