বাজেটে স্বাস্থ্য খাতে ৪০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
124

দেশব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করেছে নভেল করোনা ভাইরাস। ভয়াবহ আকার ধারণ করা এই মহামারির মধ্যেই ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করতে যাচ্ছে সরকার। তাই এবারের বাজেটে স্বাস্থ্য খাতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে এ খাতে ৪০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সমিতি।

আজ সোমবার (০৮ জুন) ‘করোনার মহাবিপর্যয় থেকে মুক্তি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ বিনির্মাণে ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির বিকল্প বাজেট প্রস্তাবনা’ শীর্ষক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি ড. আবুল বারকাত বলেন, গ্রাম পর্যায়সহ দেশের ৮২ ভাগ মানুষের কাছে করোনার সেবা পৌঁছায়নি। দায়সারা কাজ হয়েছে। এ মুহূর্তে প্রয়োজন ছিল শক্তিশালী স্বাস্থ্য সেবা। কিন্তু আমাদের স্বাস্থ্য সেবা খাত অত্যন্ত নাজুক। এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে স্বাস্থ্য খাতের জন্য আগামী বাজেটে ৪০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের দাবি জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. জামাল উদ্দিন আহমেদসহ অন্যান্য সদস্যরা। সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই করোনায় মৃত্যুবরণকারীদের প্রতি শোক জানানো হয়।

ড. বারকাত বলেন, করোনায় বাংলাদেশসহ সারাবিশ্ব ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। করোনা দেশের মানুষের জীবন ও জীবিকাকে ব্যাহত করেছে। কর্মহীনতা ও দারিদ্রতা বেড়েছে। তাই আগামী বাজেট হবে করোনা থেকে মুক্তির বাজেট। দেশের আয় ও সম্পদ বৈষম্য দূর করতে হবে।

আইএমএফের মতে করোনায় বিশ্বের ৫০ ভাগ মানুষ জীবিকা হারানোর ঝুঁকিতে পড়বে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ২০২০-২১ অর্থবছরের সংকোচনমূলক বাজেট চাই না, চাই সম্প্রসারণমূলক বাজেট।

আগামী পাঁচ বছরের বাজেটেও সমাজ থেকে আয়, সামাজিক, স্বাস্থ্য এবং শিক্ষা বৈষম্য দূর করতে হবে বলে তিনি মনে করেন।

অর্থসূচক/এমআরএম/কেএসআর