‘ভালোবাসার অপরাধে’ মেয়ের শিরশ্ছেদ করলেন বাবা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

0
120

ইরানে ৩৪ বছর বয়সী এক তরুণকে ভালোবাসতো রমিনা নামে এক কিশোরী। তবে পরিবার তাদের বিয়েতে রাজি হয়নি। ফলে মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে পালিয়ে যায় রমিনা। ৫ দিন পর তার সন্ধান মেলে। এরপর ২১ মে রমিনা আশরাফির শিরশ্ছেদ করেন তার বাবা রেজা আশরাফি।

ভালোবাসার মানুষকে বিয়ের অপরাধে ১৪ বছর বয়সী মেয়েকে হত্যার ঘটনাটি তেহরান থেকে ৩২১ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমের তালেশ শহরের। এ ঘটনায় তোলপাড় চলছে গোটা ইরানজুড়ে।

গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পালিয়ে বিয়ে করার পর সন্ধান পেয়ে পুলিশ রমিনাকে তার পরিবারের জিম্মায় দিয়ে দেয়; যদিও সে বারবার তাকে বাড়ি না পাঠানোর আকুতি জানায়। তবে তার অনুরোধে সাড়া দেয়নি পুলিশ। ক্ষমা করে দেয়া হয়েছে এমন মিথ্যা প্রলোভনে রেজা আশরাফি রমিনাকে বাড়ি নিয়ে যান।

২১ মে রমিনা তার কক্ষে ঘুমাচ্ছিল। এ সময় তার বাবা একটি কাস্তে নিয়ে ঘরে ঢুকে আঘাত করে তার মাথা দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলেন। এ ঘটনায় ঘাতক বাবা অপরাধ স্বীকার করেছেন এবং পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে।

অর্থসূচক/কেএসআর