২৪ হাজার কোটি ডলারের অস্ত্র কিনবে জাপান

Japan_boosts_military_পূর্ব চিন সাগরের কয়েকটি দ্বীপপুঞ্জের মালিকানা নিয়ে চিনের সঙ্গে বিরোধের প্রেক্ষাপটে  জাপান চালক বিহীন বিমান (ড্রোন), আকাশযান ও উভচর যানসহ অন্যান্য সামরিক যন্ত্রপাতি কেনার ঘোষণা দিয়েছে। আর এ অস্ত্রসস্ত্র কিনতে দেশটি ২৪০ বিলিয়ন বা ২৪ হাজার কোটি ডলার ব্যয় করবে।

 

ফ্রান্সের সংবাদমাধ্যম এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে দেশটির প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে গঠিত মন্ত্রিপরিষদ আগামি ২০১৪ থেকে ২০১৯ সালের মধ্যে সামরিক যন্তপাতি বাবদ ২৪০ বিলিয়ণ মার্কিন ডলার ব্যয় করবে। এর ফলে আলোচ্য সময়ে দেশটির সামরিক ব্যয় ৫ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী জাপানি সংবিধান অনুযায়ী বিষয়টি কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত থাকলেও অ্যাবে তাদের নিরাপত্তা রক্ষায় দেশের সামরিক সক্ষমতা বাড়ানোর ঘোষণা দেন।

সংবাদমাধ্যম কোয়েডো এক প্রতিবেদনে জানায়, মঙ্গলবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের নিয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করে দেশটি । এসময় এ্যাবে বলেন, আত্নরক্ষার জন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের মতো জাপানও জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল গঠনের পর সামরিক খাতে এই বিশাল ব্যয় ঘোষণা করে ।এতে করে জাপানের বৈদেশিক ও প্রতিরক্ষানীতি  আরো জোরদার হবে বলে মনে করেন তিনি ।

উল্লেখ্য, জাপানি মালিকানাধীন কয়েকটি দ্বীপপুঞ্জের আকাশসীমাসহ পূর্ব চিন সাগরের ব্যাপক একটি এলাকাকে সম্প্রতি নিজের আকাশ প্রতিরক্ষা সনাক্তকরণ অঞ্চল (এডিআইজেড) বলে ঘোষণা করেছে চিন। এই ঘোষণা নিয়ে চিনের সঙ্গে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের তীব্র উত্তেজনার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই জাতীয় প্রতিরক্ষানীতিন প্রেক্ষাপটে সামরিক খাত আরও মজবুত করার ঘোষণা দিল জাপান।