২১ মার্চেই উপ-নির্বাচন, হাত ধুয়ে ভোট দেওয়ার পরামর্শ

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
61

আসন্ন ঢাকা-১০ আসনসহ তিনটি সংসদীয় আসনে উপনির্বাচন যথাসময়ে হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন সচিব মো. আলমগীর।

তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের প্রকোপের মধ্যে জনস্বাস্থ্যের হুমকি দেখছে না নির্বাচন কমিশন। সেজন্য আগামী ২১ মার্চের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ভোটাররা হাত ধুয়ে ভোট দেবেন। ভোট দিয়ে আবার হাত ধোবেন।

অনির্ধারিত কমিশন বৈঠক শেষে আজ বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বিকেলে নির্বাচন ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

নির্বাচন কমিশন সচিব বলেন, করোনার প্রকোপের মধ্যে নির্বাচন করা যাবে কি-না, এই প্রশ্নের মধ্যে নির্বাচন কমিশন আলোচনায় বসেছিলেন। যেহেতু চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনের জন্য হাতে আরও সময় আছে, তাই পরিস্থিতি দেখে আগামী মার্চের বৈঠকে এ নির্বাচন বন্ধ করা হবে কি-না, সে সিদ্ধান্ত নেবে কমিশন।

সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রতি ভোটকেন্দ্রে হ্যান্ড স্যানিটাইজার থাকবে। ভোট দেওয়ার আগে ও পরে ভোটাররা এটা ব্যবহার করবেন। কেউ যদি নিজেকে করোনায় আক্রান্ত বলে মনে করেন, তারা ভোট দিতে আসবেন না।

ইসি সচিব বলেন, একজন ভোটার আসলেও আইন অনুযায়ী নির্বাচন করতে হবে। প্রার্থীরাও আমাদের নির্বাচন বন্ধ না করার অনুরোধ করেছেন।

মো. আলমগীর বলেন, করোনা এখনো মহামারি আকারে ছড়ায়নি। এজন্য কমিশন নির্বাচন সম্পন্ন করা যুক্তিযুক্ত মনে করছে। তবে করোনার কারণে ভোটার উপস্থিতি কম হবে ধরে নিয়েই আমরা নির্বাচন করছি।

সংবাদ সম্মেলনে ইসির যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান, এসএম আসাদুজ্জামান, জনসংযোগ পরিচালক মোহা. ইসরাইল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ২১ মার্চ ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩ ও বাগেরগাট-৪ আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া আগামী ২৯ মার্চ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচন এবং বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

অর্থসূচক/কেএসআর