দেশের অর্থনীতিতে বিদেশি ব্যাংকের অবদান নেই: গভর্নর

0
96
standard chartered, citi na, alfalah, hsbc
এই চার ব্যাংকের মতো বিদেশী কোনো ব্যাংক অর্থনীতিতে অবদান রাখে না
standard chartered, citi na, alfalah, hsbc
এই চার ব্যাংকের মতো বিদেশী কোনো ব্যাংক অর্থনীতিতে অবদান রাখে না

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে বিদেশী ব্যাংকের কোনো অবদান নেই বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান। এজন্য এ ব্যাংকগুলোকে আর্থিক অন্তর্ভূক্তিতে অবদান রাখতে বাধ্য করার জন্য নতুন করে কঠোর নীতিমালা করার আহবান জানিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক ট্রেনিং একাডেমিতে ‘সাসটেইনেবল বিজনেস মডেল ফর এসএমই ব্যাংকিং’ সেমিনারে তিনি কেন্দ্রীয় ব্যাংকে এ কঠোর নীতিমালা করার আহবান জানান।

তিনি বলেন, বিদেশী ব্যাংকগুলো আমাদের দেশ থেকে শুধু ব্যবসা করে যাচ্ছে কিন্তু আমাদের অর্থনীতিতে কোন অবদান রাখছে না। তাই এ ব্যাংকগুলোকে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখতে বাধ্য করার জন্য কঠোর নীতিমালা করতে হবে। বিশেষ করে ক্ষুদ্র এ মাঝারি শিল্প এবং কৃষিতে তাদের অন্তর্ভক্তি করতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে কঠোর হতে হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

খেলাপি ঋণের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশের মোট ঋণ খেলাপির ৩ ভাগের ২ ভাগ হলো বড় বড় ঋণ গ্রহীতারা। এদের সংখ্যা কম হলেও আমরা এদের ব্যাপারে তেমন গুরুত্ব দিই না অথচ এসএমই খাতে সামান্য খেলাপি ঋণের আভাস পেলেই তা নিয়ে গবেষণা শুরু হয়ে যায়। এসএমই ঋণ গ্রহীতাদের অতি সামান্যই খেলাপি হচ্ছে বলে তিনি জানান।

তিনি আরও বলেন, বিশ্বে ভবিষ্যৎ সম্ভাবনার দেশ হিসেবে বাংলাদেশ এখন দ্বিতীয় অবস্থানে আছে। আর প্রথম অবস্থানে আছে ভিয়েতনাম। দেশের অভ্যন্তরীন সমস্যার কারণে দেশের এ সম্ভাবনা যেন বিলিন হয়ে না যায় তার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান।

সেমিনারের অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর ও বিশিষ্ট ব্যাংকার খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ, এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. সৈয়দ মোঃ ইহসানুল করিম, বিআইবিএম-এর মহাপরিচালক ড. তৌফিক আহমদ চৌধুরী, ইস্টার্ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলী রেজা ইফতেখার, আইডিএলসি প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম আর এফ হোসাইন প্রমুখ। এছাড়া বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ নির্বাহী ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এ সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন।
সেমিনারটি আয়োজন করে এসএমই ফাউন্ডেশন আর সার্বিক সহযোগিতা করে ও বাংলাদেশ ব্যাংক বিবিটিএ।

সেমিনারে আলী রেজা ইফতেখার ও আর এফ হোসাইন দুটি এসএমই বিজনেস মডেল উপস্থাপন করেন। আলী রেজা সেন্ট্রালইজড এবং হোসাইন ডিসেন্ট্রালাইড মডেলের ধারণা দেন। তারা উভয়ই দেশের অর্থনীতিতে এসএমই খাতের গুরুত্বপূর্ণ অবদানের কথা তুলে ধরেন এবং এ খাতের প্রসারে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। মডেল দুটিতে তারা ব্যাংক এবং গ্রাহকদের মধ্যকার সম্পর্ক বাড়ানোর ওপর জোর দেন।
এসএই/