ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাংবাদিককে দণ্ড: বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
139

অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে কারাদণ্ড দেওয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। রিটে বিবাদী করা হয়েছে মন্ত্রিপরিষদ সচিবসহ সংশ্লিষ্ট ১৭ জনকে।

আজ রোববার (১৫ মার্চ) বাংলা ট্রিবিউনের নির্বাহী সম্পাদক হারুন উর রশীদের পক্ষে আইনজীবী ইশরাত হাসান জনস্বার্থে রিটটি দায়ের করেন।

পরে ইশরাত হাসান গণমাধ্যমকে বলেন, আজ হাইকোর্টের বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি সরদার মো. রশিদ জাহাঙ্গীরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে শুনানি হতে পারে। এ মামলায় সাংবাদিকের পক্ষে লড়বেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

এছাড়া রিটে ফৌজদারি কার্যবিধি, ভ্রাম্যমাণ আদালত আইন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন এর সংবিধানের ৩১, ৩২, ৩৫ এবং ৩৬ অনুচ্ছেদের সুস্পষ্ট লঙ্ঘনের বিষয় তুলে ধরা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (১৩ মার্চ) মধ্যরাতে বাড়িতে হানা দিয়ে মারধর করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে। তার বাসায় আধা বোতল মদ ও দেড়শ’ গ্রাম গাঁজা পাওয়া গেছে বলে অভিযোগ আনা হয়। রাত ১২টার পর জেলা প্রশাসকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিন্টু বিকাশ চাকমার নেতৃত্বে কয়েকজন ম্যাজিস্ট্রেট আনসার সদস্যদের নিয়ে তার বাড়িতে যান। একপর্যায়ে তারা দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে স্ত্রী-সন্তানের সামনেই আরিফকে মারধর করে ধরে নিয়ে যান।

পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নিয়ে তার বাসায় আধা বোতল মদ ও দেড়শ’ গ্রাম গাঁজা রাখার অপরাধে এক বছরের কারাদণ্ড দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

অর্থসূচক/কেএসআর