ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু ১৫ মে

0
93

voter_55872_0ভোটার তালিকা হালনাগাদের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগামি ১৫ মে থেকে শুরু হয়ে তিন ধাপের কার্যক্রম সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত চলবে।
রোববার দুপুরে ইসির দেশব্যাপী ভোটার তালিকা হালনাগাদ সংক্রান্ত সমন্বয় কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
ইসি সূতে জানা যায়, ভোটার তালিকা হালনাগাদের প্রথম ধাপ কার্যক্রম ১৫ মে, দ্বিতীয় ধাপের ১৫ জুন ও তৃতীয় ধাপের কার্যক্রম ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে। ২০১৪ ও ২০১৫ সালের ভোটারযোগ্যদের নিয়ে হালনাগাদ করা হবে। এবার কমপক্ষে ৪৬ লাখ ভোটার হতে পারে বলে মনে করছে ইসি।
ইসির জনসংযোগ পরিচালক এস.এম. আসাদুজ্জামান জানান, দেশব্যাপী ভোটার তালিকা হালনাগাদের কার্যক্রম ১৫ মে শুরু করা হবে।
তিনি জানান, প্রথম ধাপে ১৫ মে থেকে ২৪ মে ১৮২টি থানার নির্বাচন অফিস ও উপজেলায়, দ্বিতীয় ধাপে ১৫ জুন থেকে ২৪ জুন ২১৯টি উপজেলায় এবং তৃতীয় ধাপে ১ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ সেপ্টেম্বর ১১৩টি উপজেলায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারযোগ্যদের তথ্য সংগ্রহ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। এক্ষেত্রে শেষ ধাপেই সিটি করপোরেশন এলাকাকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।
আসাদুজ্জামান বলেন, এবারের ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে প্রায় অর্ধ কোটি ভোটার তালিকাভুক্ত করার পরিকল্পনা করছে নির্বাচন কমিশন। স্থানীয়ভাবে প্রতিটি এলাকায় ১০দিন তথ্য সংগ্রহ করা হবে। তারপর প্রতি পর্বে নিবন্ধন কেন্দ্রগুলোয় ১০দিন করে ছবি তোলার কার্যক্রম চলবে।
তিনি জানান, ১৯৯৭ সালের ১ জানুয়ারি বা এর আগে যাদের জন্ম হয়েছে অর্থাৎ ২০১৫ সালের ১ জানুয়ারি যাদের ১৮ বছর বা তার বেশি বয়স হয়েছে তারা ভোটার হতে পারবে। এ কার্যক্রমের সময় মৃতদের বাদ দেওয়ার পাশাপাশি স্থানান্তর, সংশোধন, বাদ পড়াদের অন্তর্ভূক্তিও চলবে।
তিনি আরও বলেন, হালনাগাদ কার্যক্রম চলাকালে রোহিঙ্গা ও ভারতীয় নাগরিকদের ভোটার হওয়ার ঠেকাতে সংশ্লিষ্ট ১৪টি উপজেলাকে বিশেষ এলাকা হিসেবে চিহ্নিত করেছে ইসি। ভোটারদের যাচাইয়ে বিশেষ ফরমও ব্যবহার করা হবে।
এইচকেবি/এমই