ভারতীয়রা অবৈধভাবে এ দেশে কাজ করে কীভাবে, প্রশ্ন আসিফ নজরুলের

অর্থসূচক ডেস্ক

0
87

বাংলাদেশের বেসরকারি চাকরির বাজারে এখন ভারতীয়দের দাপট। পোশাক, বায়িং হাউজ, আইটি এবং সেবা খাতে তারা প্রাধান্য বিস্তার করে আছে। এসব খাতে প্রায় পাঁচ লাখ ভারতীয় কাজ করে বলে ধারণা করা হয়। কিন্তু তাদের অধিকাংশেরই কোনো ওয়ার্ক পারমিট নেই। এছাড়া তাদের বেতনও অনেক বেশি। ফলে বিপুল পরিমাণ অর্থ অবৈধভাবে ভারতে পাচার হয়।

ট্যুরিস্ট ভিসায় যারা কাজ করেন তাদের আয় করা পুরো অর্থই অবৈধ পথে বাংলাদেশের বাইরে চলে যায়। শুক্রবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) একটি জাতীয় দৈনিকের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়।

ওই প্রতিবেদনটি শেয়ার করে সামাজিকমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল।

তিনি লেখেন, ‘অবৈধভাবে গরু আনতে গেলে ভারতীয় বাহিনীর হাতে গুলি খেয়ে প্রাণ হারায় বাংলাদেশের মানুষ। অবৈধভবে ভারতীয়রা এদেশে কাজ করে কীভাবে? সেও এতো বিপুল সংখ্যায়, দেশে এতো প্রকট বেকার সমস্যা থাকার পরও।’

‘এ দেশের প্রতিটি নাগরিকের উচিত সরকারের কাছে এসব প্রশ্ন তোলা। জবাব চাওয়া।’

এর আগে গত বুধবার ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশে মোট বিদেশি দুই লাখ ৫০ হাজার। তাদের মধ্যে বৈধ ৯০ হাজার। বাকিরা অবৈধভাবে বাংলাদেশে আছেন।

আর যারা বৈধভাবে আছেন তাদের মধ্যে ৫০ ভাগ কোনো অনুমতি না নিয়েই টুরিস্ট ভিসায় বাংলাদেশে এসে কাজ করছেন। এই বিদেশিরা বছরে ২৬ হাজার ৪০০ কোটি টাকা পাচার করেন।

অর্থসূচক/কেএসআর