ফরিদপুর মুক্ত দিবস পালিত
বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ঢাকা

ফরিদপুর মুক্ত দিবস পালিত

ফরিদপুর ম্যাপসারাদেশ ১৬ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হলেও ফরিদপুর জেলা পাকিস্তানি সেনাদের কবল থেকে মুক্ত হয় ১৭ ডিসেম্বর। ফরিদপুরের উত্তর-পূর্ব কোনে খলিল মণ্ডলের হাট থেকে শুরু করে তালুকের চর হয়ে সিএন্ডবি ঘাট পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে পাকিস্তানি সেনা ও তাদের এদেশীয় দোসরদের সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধ হয় ওই দিন। এক পর্যায়ে পাক বাহিনীকে পরাস্ত করে ফরিদপুরকে শত্র“মুক্ত করে বাংলার বীর সেনানীরা।

দিনটিকে স্মরণ করার জন্য এবছর স্থানীয়রা আয়োজন করে দৌড় প্রতিযোগিতা ও আলোচনা অনুষ্ঠানের।

১৭ ডিসেম্বর সকাল থেকেই জেলার কৃষ্ণনগরে আনন্দ উৎসবের আবহ সৃষ্টি হয়। কুয়াশা ভেজা মাঠে দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আশেপাশের এলাকা থেকে সমবেত হয় প্রতিযোগীরা। আর এ আয়োজনে সামিল হতে শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে সর্বস্তরের মানুষ জড়ো হয় বাহাদুরপুর স্কুল মাঠে। সেখান থেকে সাড়ে ছয় কিলোমিটার মিনি ম্যারাথন দৌড়ে প্রতিযোগিরা পৌছে যায় পারচর স্কুল পর্যন্ত। স্থানীয় জয়োল্লাস নামের একটি সংগঠনের আয়োজনে এই বিজয় উৎসবে যোগ দিয়ে ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা ও স্থানীয় জন প্রতিনিধিরা ।

অনুষ্ঠানের আহবায়ক হানিফ শেখ বলেন, দেশের এই সংকটময় রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে ফরিদপুর মুক্ত দিবসের ক্ষণটিকে স্মরণীয় করে রাখতে সকলে এক মঞ্চে সমবেত হয়েছি ।

আয়োজক অধ্যাপক শৈলেন বিশ্বাস বলেন, প্রতি বছরই দিনটি উপলক্ষে দৌড় প্রতিযোগিতার উৎসবে অংশ নেওয়ার জন্য বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতিযোগীরা আসে ।

মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল সালাম মোল্লা বলেন, ফরিদপুর মুক্ত দিবসের এই উৎসব হওয়ায় মুক্তিযোদ্ধারা গর্বিত ও আনন্দিত ।

মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের প্রজন্মকে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতেই এ আয়োজন।

রাজনৈতিক দলগুলো যখন দেশে সংঘাতময় পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে তখন ফরিদপুর জেলা হানাদার মুক্ত হওয়ার দিনটিতে বিভিন্ন মতের মানুষ একত্রিত হয়ে উৎসবে সামিল হয়েছে, যা হতে পারে একটি উদাহরণ ।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ