সাক্ষ্য দিলেন দীপনের স্ত্রী

0
96

জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সাল আরেফীন দীপন হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছেন মামলার বাদী ও নিহতের স্ত্রী রাজিয়া রহমান জলি। এছাড়া মামলায় জব্দ তালিকার সাক্ষী আনোয়ার হোসেনও সাক্ষ্য দিয়েছেন।

রোববার (০১ ডিসেম্বর) ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমানের আদালতে সাক্ষ্য দেন তারা।

সাক্ষ্যপ্রদান শেষে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা তাদের জেরা করেন। এরপর দুপুর ২টার দিকে সাক্ষ্যপ্রদান শেষে তারা আদালত কক্ষ ত্যাগ করেন।

সাক্ষ্যগ্রহণের সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৩ অক্টোবর এই মামলায় অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর নির্দেশ দেন আদালত। ওইদিনই সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ১৮ নভেম্বর দিন ধার্য করা হয়েছিল। তবে সেদিন বাদী সাক্ষ্য দিতে আসেননি। তাই আদালত ১ ডিসেম্বর সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১৫ নভেম্বর সন্ত্রাসবিরোধী আইনে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দীপন হত্যা মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি দক্ষিণের সহকারী পুলিশ কমিশনার ফজলুর রহমান।

অভিযোগপত্রে আটজনকে অভিযুক্ত ও ১১ জনকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়।

আসামিরা হলেন- মইনুল হাসান শামীম, মো. আ. সবুর, খাইরুল ইসলাম, মো. আবু সিদ্দিক সোহেল, মো. মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন, মো. শেখ আব্দুল্লাহ, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চাকরিচ্যুত মেজর সৈয়দ জিয়াউল হক এবং আকরাম হোসেন ওরফে হাসিব।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৬ সালের ৩১ নভেম্বর রাজধানীর শাহবাগে আজিজ সুপার মার্কেটের নিজ অফিসে দীপনকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ওই দিনই তার স্ত্রী রাজিয়া রহমান জলি শাহবাগ থানায় হত্যা মামলা করেন।

অর্থসূচক/এমএস